Monday , April 15 2024
Home / Countrywide / শেখ হাসিনা কোনো জবাব দিতে পারেননি: রুমিন ফারহানা

শেখ হাসিনা কোনো জবাব দিতে পারেননি: রুমিন ফারহানা

দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির কারনে বাংলাদেশের( Bangladesh ) নিম্ন আয়ের মানুষ বিপাকে পড়েছে। ব্যরিস্টার রুমিন ফারহানা বলেন মজা করে বলা যায় রান্নায় পিয়াজ খাওয়া কমিয়ে দিন। বাংলাদেশে দ্রব্যমূল্য যে হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে তাতে খাওয়া বাদ দিয়ে দিতে হবে। বিএনপি বিক্ষোভ সমাবেশে বিএনপির( BNP ) নেতারা বলেন আগের নির্বাচনের মত আর নির্বাচন হতে দিবে না। বিএনপি নিরপেক্ষ সরকারের( government ) অধীনে নির্বাচন করবে।

ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা এমপি ( Rumin Farhana MP ) বলেন, আমি সংসদে বলেছি বাজারে আগু’ন লেগেছে। কত লোক চাকরি হারিয়েছে, কতজন চাকরি পরিবর্তন করতে বাধ্য হয়েছে, কত লোকের আজ ঘরে ভাত নেই, বাড়ি ভাড়া দেওয়ার সামর্থ্য নেই; শেখ হাসিনা( Sheikh Hasina ) আপনি উত্তর দিন। কিন্তু উত্তর দিতে পারলেন না।

বুধবার বিকেলে ( afternoon ) জামালপুর ( Jamalpur ) জেলা বিএনপির ( BNP ) দলীয় কার্যালয়ের সামনে এক প্রতিবাদ সমাবেশে ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা এমপি ( Rumin Farhana MP ) এসব কথা বলেন।
রুমিন ফারহানা এমপি ( Rumin Farhana MP ) বলেন, এই বিশ্বে ছড়িয়ে পরা মহামারি কারনে ৫ কোটি থেকে ৬ কোটি মানুষ দারিদ্র্যসীমার নিচে চলে গেছে। চাকরি হারিয়েছে আরও কত মানুষ। বহু মানুষ চিরতরে শহর ছেড়ে গ্রামে চলে গেছে। এ সরকারের কোনো হিসাব নেই। সরকার বলছে মাথাপিছু আয় বেড়েছে, আরে মাথাপিছু আয়, সরকারের সাথে আমার সাধারণ ভাইয়ের আয় যোগ করলে মাথাপিছু আয় বেশি মনে হবে। এটা মাথাপিছু আয় নয়, এটা লুটেরা সরকারের তৈরি আয়। আজ সাধারণ মানুষের অবস্থা দিন দিন খারাপ হচ্ছে। সরকারের( government ) কোনো নজর নেই।

“আমরা যখন ২০০১ থেকে ২০০৬ পর্যন্ত সেখানে ছিলাম, তখন প্রতি কেজি চালের দাম ছিল ১৭ থেকে ২০ টাকা, এখন দাম ৭০ টাকা কেজিতে উঠেছে,” তিনি বলেছিলেন। ৭০ টাকা কেজির চাল প্রধানমন্ত্রী আপনি কিনে খেতে পারবেন, আমরা পারি না, সাধারণ মানুষ কিনে খেতে পারে না। আমাদের সময়ে পেঁয়াজের দাম ছিল ৮ টাকা কেজি, এখন সেই পেঁয়াজের দাম বেড়ে ৫৫ টাকা, সেই পেঁয়াজ দিয়েই রান্না হয় ঘরে। মজা করে বলতে পারেন, রান্নায় পেঁয়াজ খাওয়া কমিয়ে দিন, লোকেদের নিয়ে মজা করবেন না। আমি এটা পরিষ্কার করতে চাই যে মানুষকে মজা করার খরচ অনেক বেশি। আপনি মানুষকে ২১ বছর ধরে রাস্তায় হাঁটতে দেখেছেন মানুষের সাথে মজা করে; ক্ষমতায় আসতে পারবে না।

জামালপুর( Jamalpur ) জেলা বিএনপির( BNP ) সভাপতি ফরিদুল কবির তালুকদার শামীম ( Faridul Kabir Talukdar Shamim ) ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শাহ মো.( Shah Md. ) ওয়ারেছ আলী মামুনের( Ali Mamun ) পরিচালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স( Syed Emran Saleh Prince ), জলবায়ু সহ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল( Mostafizur Rahman Babul ), কেন্দ্রীয় যুবদলের সহ-সভাপতি খন্দকার মাকসুদ আলম( Khandaker Maqsood Alam ) ও কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দল। আজাদ প্রমুখ।

এছাড়া বক্তব্য রাখেন জামালপুর( Jamalpur ) জেলা বিএনপির( BNP ) সহ-সভাপতি সাফিউর রহমান সাফি( Safiur Rahman Safi ), অ্যাডভোকেট মঞ্জুর কাদের বাবুল খান( Manjur Kader Babul Khan ), সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম খান( Shafiqul Islam Khan ) সজীব প্রমুখ। বিক্ষোভ সমাবেশে বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

প্রসংগত, বাংলাদেশে যে হারে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে তাতে নিম্ন আয়ের মানুষের ক্রয় ক্ষমতা বহুগুনে কমে গেছে, তার প্রতিবাদে বিএনপি বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে। সমাবেশে বিভিন্ন নেতাকর্মী বক্তব্য রাখে। বক্তব্যে সবাই দ্রব্যমূল্যের দাম বৃদ্ধির জন্য সরকারকে দায়ী করে। সরকারের( government ) অধীনে কোন নির্বাচন হতে দিবেনা বিএনপি একথা বলছে নেতাকর্মীরা।

 

About bisso Jit

Check Also

এবার সেই জাপানি মায়ের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ করল বাবা ইমরান শরীফ

জাপানি সন্তানদের বাংলাদেশি বাবা ইমরান শরিফ অভিযোগ করেছেন, জাপানি মা নাকানো এরিকো তার বড় মেয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *