Friday , April 19 2024
Breaking News
Home / Countrywide / তাজউদ্দীনের নাম বলা উচিৎ ছিল: আবদুর রব

তাজউদ্দীনের নাম বলা উচিৎ ছিল: আবদুর রব

নির্দলীয় সরকারের( government ) দাবিতে বিএনপির( BNP ) নির্বাচনে অংশগ্রহন করা নিয়ে দ্বিমত প্রকাশ করেন তবে এবার সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি( JSD )) হিসেবে পরিচিত এই দলটির পক্ষ থেকেও স্পষ্ট করে এই সরকারের অধীনে নির্বাচনে অংশগ্রহন না করার বিষয়টি গনমাধ্যেমে নিশ্চিত করেন দলটির সভাপতি আব্দুল রব( Rob )। বর্তমান সরকারকে মূল্যায়ন না করাসহ, ভোট চোর ,ডাকাত, জালিমসহ বিভিন্ন উপাধীতে ভুষিত করে এই সরকারের( government ) বিপক্ষে ভোটাধিকার নিশ্চিত করনের লক্ষ্যে আন্দোলনেরও প্রয়োজনীয়তার কথা ব্যাক্ত করেন জেএসডি( JSD ) সভাপতি আ স ম আব্দুল( ASM Abdul ) রব ( Abdul Rab. )

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি JSD ) সভাপতি আ স ম আবদুর রব( M Abdur Rab ) বলেছেন, আমি স্পষ্ট করে বলতে চাই এই সরকারের( government ) অধীনে আমরা কোনো নির্বাচন করব ( Rob ) না। এই সরকারকে আমরা মানি না। রাতের আঁধারে ডাকাত ডাকাতি করে। তারা অমানবিক। আন্দোলনের মাধ্যমে সরকার পদত্যাগের পর ঐক্যবদ্ধ ন্যূনতম সময়ের মধ্যে ভোটের অধিকার নিশ্চিত করা হবে।

নির্বাচন কমিশনের ‘ফয়জলামি’ করে কোনো লাভ হবে না। বর্তমান সরকারের প্রতি জনগণের আস্থা নেই। বুধবার বিকেলে ( Wednesday ) জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে জাসদ ( Jasad ) আয়োজিত এক স্মরণসভায় তিনি এসব কথা বলেন। রব ( Rob ) বলেন, স্বাধীনতা যুদ্ধে যারা অবদান রেখেছেন তাদের কাউকেই সরকার মনে রাখে না। হাজার কোটি টাকা খরচ করে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন। কিন্তু মওলানা ভাসানীর( Maulana Bhasani ) নাম একবারও উচ্চারিত হয়নি।

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করছে হাজার হাজার কোটি টাকা খরচ করেছে, কিন্তু বঙ্গবন্ধুর অনুপস্থিতিতে নয় মাস সরকার চালানো তাজউদ্দীনের নাম
বলা উচিৎ ছিল কিন্তু সেটা কখনোই বলা হয়নি। মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক জেনারেল এমএজি ওসমানীর নাম একবারও বলা হয়নি। কাদের সিদ্দিকীর নাম একবারও বলা হয়নি। স্বাধীনতার ইতিহাস এক দল ও এক পরিবারের বলি হয়েছে। তিনি বলেন, এই সরকার সব খেয়ে ফেলেছে। দেশ খাচ্ছে, স্বাধীনতা খাচ্ছে। তাই আজ পতাকা উত্তোলনের কথা আমার মনে থাকবে না। স্বাধীন বাংলাদেশের ৫০ বছরের সরকার নৈতিকভাবে ধ্বংস হয়ে গেছে। প্রশাসনকে দলীয় সম্পদে রূপান্তরিত করা হয়েছে। আসাম রব বলেন, জাতীয় সরকার গঠন করা ছাড়া এই দেশকে বাঁচানোর কোনো উপায় নেই।

সরকার ক্ষমতায় থাকা সত্ত্বেও সাংবিধানিক অধিকার নষ্ট করেছে। এ দল ক্ষমতায় থাকলে কখনোই নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব হবে না। জাতীয় সরকারের মাধ্যমে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য সবাই মিলে যে সিদ্ধান্ত নেবে সেই অনুযায়ী নির্বাচন করব। বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, মোস্তফা মহসিন মন্টু, মাহমুদুর রহমান মান্না, সাইফুল হক, জোনায়েদ সাকি, অ্যাডভোকেট হাসনাত কাইয়ুম, নুরুল হক নুর প্রমুখ।

উল্লেখ্য, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে নিয়ে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের আশা ব্যাক্ত করে বিভিন্ন মতবাদ প্রদান করেন বিরোধী দলগুলোর পক্ষ থেকে। বর্তমান সরকার ভোটচোর, জালিয়াত সহ এই সরকারে অ্‌ধীনে নির্বাচনকে আস্থাহীন বলে মন্তব্য পোষন করেন জেএসডি সভাপতি। এমনকি এই সরকার স্বাধীনতার পক্ষ্যে অবদান রাখা ব্যাক্তিত্বকে স্বরনে রাখে না এবং এই সরকার অমানবিক তাই দেশের জনগনের ভোটাধীকার নিশ্চিত করনে যাবতীয় পদক্ষেপ নেওয়ার ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্ববানের কথা গনমাধ্যেমকে নিশ্চিত করেন এই জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব।

 

About bisso Jit

Check Also

ফের রাজধানীতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড

রাজধানীর বনশ্রীতে একটি আবাসিক ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট কাজ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *