Monday , June 24 2024
Home / Countrywide / এবার আবেদনের জন্য সরকারের সবুজ সংকেতের অপেক্ষায় বিএনপি

এবার আবেদনের জন্য সরকারের সবুজ সংকেতের অপেক্ষায় বিএনপি

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা ( Begum Khaleda Zia) জিয়ার শর্তসাপেক্ষে মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর জন্য খুব শিগগিরই আবেদন করা হবে, এমনটিই জানানো হয়েছে পরিবারের পক্ষে থেকে। আগামি ২৪ মার্চের আগেই যে কোনো দিন আবেদন করা হবে। তিনি বেশ কয়েক মাস হাসপাতালে থাকার পর তার শারীরিক অবস্থা এখন কিছুটা স্থিতিশীল। তিনি বার্ধক্যজনিত সমস্যায়ও ভুগছেন। বেশ কিছু ‍দিন আগে বিশ্বব্যপী ছড়িয়ে পড়া রোগে সংক্রমিত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নেন। এই রোগ ভোগের কারনে তাঁর শরীরের আর অবনতি হয়।

তবে এবার সরকার ইতিবাচক সাড়া দিলে মুক্তির মেয়াদ বাড়ানো হতে পারে এবং এ ধরনের চিকিৎসার জন্য তাকে বিদেশে নিয়ে যাওয়ার জন্য বিশেষ অনুরোধ করা হতে পারে। খালেদা ( Khaleda ) জিয়ার পরিবার ও বিএনপি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

২০২০ সালের( year ) ২৫ মার্চ সরকারের ( government ) একটি নির্বাহী আদেশে খালেদা ( Khaleda ) জিয়াকে ছয় মাসের জন্য শর্তসাপেক্ষে মুক্তি দেওয়া হয়। ফৌজদারি কার্যবিধিতে সা’জা স্থগিত থাকায় এ পর্যন্ত চার দফায় সা’জা বাড়ানো হয়েছে। তার মুক্তির মেয়াদ ২৪ মার্চ শেষ হতে চলেছে।

খালেদা ( Khaleda ) জিয়ার বোন সেলিমা ইসলাম গণমাধ্যমকে জানান, তাকে আবেদন করতে হবে। তবে কবে নাগাদ আবেদন করা হবে তা এখনো ঠিক হয়নি। শামীম ( Shamim )  ইস্কান্দার) বিষয়টি দেখছেন। খালেদা ( Khaleda ) জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, তাকে বিদেশে পাঠাতে সরকারের ( government ) কাছে আবেদন করতে হবে। কিন্তু তারা অনুমতি দিচ্ছে না। দেখা যাক এখন কি করা যায়।

বিএনপি সূত্রে জানা গেছে, খালেদা ( Khaleda ) জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর আবেদনের নমুনা তৈরি করা হয়েছে। আগের আবেদনের কপি তারিখ সহ কিছু সমস্যা পরিবর্তন হবে। সেলিমা ইসলামের ( Selima Islam ) স্বাক্ষরে যে কোনো দিন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আবেদন জমা দেবে পরিবার। তবে এবার চিকিৎসকদের সঙ্গে আলোচনা করে খালেদা ( Khaleda ) জিয়ার চিকিৎসার প্রতিবেদন আবেদনের সঙ্গে সংযুক্ত করা হবে। সরকার তাকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর অনুমতি দিতে পরিবার ও দল নতুন উদ্যোগে জোর দিচ্ছে। উদ্যোগের কার্যকারিতা নির্ভর করছে সরকারের ( government ) সবুজ সংকেতের ওপর।

এদিকে গুলশানের ( Gulshan ) ফিরোজায় নিজ বাসভবনে অবস্থানরত খালেদা জিয়ার অসুস্থতা আগের চেয়ে বেড়েছে। তার পা ফুলে গেছে। ফলে হাঁটতে সমস্যা হচ্ছে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর। সেলিমা ইসলাম জানান, চিকিৎসকরা তার চিকিৎসা করছেন।

তবে খালেদা ( Khaleda ) জিয়ার মেডিকেল বোর্ডের ( Zia Medical Board ) চিকিৎসক ও বিএনপির ( BNP ) ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন ( AZM Zahid Hossain ) এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

প্রসঙ্গত, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম জিয়ার ( Begum Zia ) শারীরিক সুস্থতা কামনা করছেন বিএনপির ( BNP ) নেতাকর্মীরা। সুস্থ হয়ে ‍তিনি জনগনের নিকট ফিরে এসে রাজনৈতিক ও সামাজিক কাজে নিয়োজিত হতে পারেন এটাই তার দলের নেতাকর্মীদের প্রত্যাশা। রাজনীতির উর্ধ্বে গিয়ে মানবিক দৃষ্টিকোন থেকে তার সুচিকিৎসার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা সরকার করবেন এটাই তাদের প্রত্যশা। মানব কল্যান হওয়া উচিত রাজনীতির মূখ্য উদ্দেশ্য এটাই সাধারন মানুষের কাম্য।

About bisso Jit

Check Also

মসজিদের ইমামের কোনো দোষ নেই, জবির সেই আলোচিত ছাত্রী

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমাম মো. ছালাহ উদ্দিনকে এক ছাত্রীকে ঘিরে বিতর্কিত ঘটনার জের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *