Monday , June 24 2024
Home / Sports / জানা গেল সাকিবের খেলা থেকে বিরতি চাওয়ার কারন

জানা গেল সাকিবের খেলা থেকে বিরতি চাওয়ার কারন

আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে নিজের পারফরম্যান্সের হতাশা প্রকাশ করেছেন সাকিব আল হাসান( Shakib Al Hasan )। ক্রিকেটে আগ্রহ হারিয়ে বিশ্রাম নিতে চান এই টাইগার অলরাউন্ডার। তবে কবে নাগাদ এই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে পারবেন সে বিষয়ে এখনো কিছু জানা যায়নি। গত রোববার (৬ মার্চ) দুবাইয়ের( Dubai ) উদ্দেশে দেশ ছাড়ার আগে গণমাধ্যমের কর্মীদের সঙ্গে একথা বলেন সাকিব আল হাসান( Shakib Al Hasan )।

দক্ষিণ আফ্রিকার( South Africa ) বিপক্ষে আইপিএলে  স্কোয়াডে জায়গা পেয়েছেন সাকিব আল হাসান( Shakib Al Hasan )। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যাওয়ার কথাও বিসিবিকে জানিয়েছেন তিনি। কিন্তু হঠাৎ করেই ব্যক্তিগত কাজে রোববার দুবাই চলে যান বাঁহাতি অলরাউন্ডার। সাকিব বিসিবিকে চিঠিও লিখেছিলেন যে তিনি বিদায়ের আগে খেলতে চান না। এ খবর রাতে সারা দেশে শোরগোল শুরু হয়। ২২ গজের মাঠের খেলায় কেন বিরতি চান তিনি চিঠিতে উল্লেখ করেছেন। ক্রিকেট খেলার মতো মানসিক ও শারীরিক অবস্থা নেই বলে জানিয়েছেন সাকিব।

এই মুহূর্তে মনে হচ্ছে তিনি ক্রিকেটে ভালো পারফরমেন্স করতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন। সাকিব বলেন, দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের কথা বললে, আমার মনে হয় না এই মুহূর্তে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা আমার পক্ষে সম্ভব, আমার শরীরের অবস্থা দেখে। আমি যদি বিরতি পাই আর যদি সেই আগ্রহ ফিরে পাই, তাহলে খেলাটা আমার জন্য সহজ হবে। কারণ আমার মনে হচ্ছে আফগানিস্তান সিরিজের আমি একজন যাত্রী। আমি যেটা কখনোই হতে চাই না।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে ব্যাট হাতে কোনো ছন্দ না থাকায় আপাতত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিরতি চাইছেন সাকিবের কথায় এটা স্পষ্ট। একই কারণে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর থেকে নিজেকে সরিয়ে নিতে চান। তবে সাকিবকে নিয়ে ভাবছে বিসিবি। সাকিব বলেন, আমি আফগানিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে সিরিজটা মোটেও উপভোগ করিনি। চেষ্টা করতে ভুল করিনি, কিন্তু পারিনি। আমার মনে হয় না দক্ষিণ আফ্রিকা সেই মানসিকতা নিয়ে সিরিজ খেলা ঠিক হবে।

আমি এ বিষয়ে জালাল( Jalal ) ইউনুস ভাইয়ের (ক্রিকেট ম্যানেজমেন্ট প্রধান) সাথে কথা হয়েছে। জালাল( Jalal ) ভাই বলেছেন, উনিও দুই দিন ভাববে। আমাকেও ভাবার সময় দিয়েছেন। এমন মানসিকতা নিয়ে একাদশে যোগ দিতে আগ্রহী নন সাকিব। বিশ্বের সেরা এই অলরাউন্ডার বলেন, এখন পর্যন্ত যদি আমার মানসিক, শারীরিক অবস্থা থাকে, তাহলে দলের জন্য ক্ষতি হবে। আগেই বলেছি, নিজের প্রত্যাশা, জনগণের প্রত্যাশা পূরণ করতে না পারলে দলে থাকাটা খুবই দুঃখজনক। এই অবস্থায় আমি খেলতে গেলে এটা আমার সতীর্থদের সঙ্গে এবং দেশের সঙ্গে প্রতারণার মতো হবে,যা আমি অবশ্যই চাই না। তিন ম্যাচের ওয়ানডে ও দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে ১১ মার্চ( March ) দক্ষিণ আফ্রিকা যাবে বাংলাদেশ।

উল্লেখ্য, সাকিব আল হাসান( Shakib Al Hasan ) ফিরে আসার বিষয়ে সঠিক কোনো তথ্য দেননি। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজে এই সেরা অলরাউন্ডার থাকবেন কিনা সে ব্যাপার পুরোটাই ধোয়াশা। অন্তত ওয়ানডে সিরিজ খেলবেন না বলে নিশ্চত করে জানিয়েছেন নিজেই। সাকিব বলেন,হয়তো ১৫-২০ দিন বিশ্রামের পর ক্রিকেটে আমার আগ্রহ আসতে পারে। আর তখন হয়তো আমি দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে দলের সঙ্গে যোগ দিতে পারি এমনটাই গনমাধ্যম কর্মীদের বললেন সাকিব আল হাসান( Shakib Al Hasan )।

 

About Syful Islam

Check Also

বড় দুঃসংবাদ মুস্তাফিজের জন্য, চুক্তি বাতিল, গ্রেপ্তার তামিম

বেশ ঘটা করেই শ্রীলঙ্কার ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি আসর এলপিএলে নাম লিখিয়েছিল ডাম্বুলা থান্ডার্স। এর মালিক ছিলেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *