Tuesday , June 25 2024
Home / Countrywide / প্রতারনায় অভিযুক্ত হলেন ড. কামাল, পড়তে পারেন দলীয় বিপাকে

প্রতারনায় অভিযুক্ত হলেন ড. কামাল, পড়তে পারেন দলীয় বিপাকে

সম্প্রতি গণফোরামের ( People’ Forum ) গঠিত কমিটিতে নেতৃত্ব নিয়ে বেশ বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। প্রধান কারণ হিসেবে উল্লেখ করা হচ্ছে, নেতাদের দ্বন্দ্বের বিষয়টি। গণফোরামের ( People’ Forum ) নেতাদের এ দ্বন্দ্ব দল গঠিত হওয়ার কিছুদিন পর থেকে চলে আসছে। ফলস্বরূপ দেখা দিয়েছে, বহিষ্কার ও পাল্টা বহিষ্কারের মত অনেক অনৈতিক রাজনৈতিক কার্যক্রম। শেষ পর্যন্ত কোন হস্তক্ষেপেই এ ঘটনার কোন সুরাহা মেলেনি। একাধিকবার ডঃ কামাল হোসেন, ঝামেলাগুলোর ( troubles ) নিরসন করতে চাইলেও এখনো পর্যন্ত কোনো কিছুই করতে পারেননি। তারপরেই তার দলের নেতাকর্মীরাই দায়ের করেছেন মামলা।

বাংলাদেশের সংবিধান প্রণেতাদের একজন, বিশিষ্ট আইনজীবী ও গণফোরামের ( People’ Forum ) প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ড. ( Dr. ) কামাল হোসেনের নামে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন তার দলের দুই শীর্ষ নেতা।গণফোরামের ( People’ Forum ) একাংশের সভাপতি মোস্তফা মহসিন মন্টু এবং নির্বাহী সভাপতি ও আইনজীবী মোহাম্মদ মহসিন রশিদ এই নোটিশ পাঠিয়েছেন।কাউন্সিল ( Council ) আয়োজনের অনুমতি নিয়ে কমিটি গঠনের পর নির্বাচন কমিশন চিঠিতে বিষয়টি অস্বীকার করে। কামাল প্রতারণা করেছেন, বলে নোটিশে অভিযোগ করা হয়েছে।

জানতে চাইলে অ্যাডভোকেট মহসিন রশীদ বলেন, মোস্তফা মহসিন মন্টুর ( Mostafa Mohsin Montur ) নেতৃত্বে ৩ ডিসেম্বর ( December ) গণফোরামের ( People’ Forum ) কাউন্সিল ( Council ) অনুষ্ঠিত হয়। কামাল হোসেন নিজেই চিঠিতে কাউন্সিল ( Council ) আয়োজনে রাজি হয়েছেন ড. ( Dr. ) এরপর কাউন্সিল ( Council ) হয়েছে, গণফোরামের ( People’ Forum ) নতুন কমিটি হয়েছে। এখন দেখছি মোকাব্বির খানের ( Mokabbir Khan ) নেতৃত্বে ১২ মার্চ ( March ) আবারও গণফোরামের ( People’ Forum ) সম্মেলন ডাকা হয়েছে। আপনি যদি এই সম্মেলনে যোগদান করেন। কামাল হোসেনের বিরুদ্ধে আইনগত ( Past ) ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মহসিন রশিদ আরও জানান. কামাল হোসেনের অনুমতি নিয়ে আমরা সম্মেলন করেছি। পরে কাউন্সিল ( Council ) থেকে গণফোরামের ( People’ Forum ) নতুন কমিটি নির্বাচিত হয়। কমিটির নেতাদের নাম উল্লেখ করে প্রধান নির্বাচন কমিশনে চিঠিও পাঠানো হয়েছে। কিন্তু ড. ( Dr. ) কামাল হোসেন গত ( Past ) ৩ ফেব্রুয়ারি ( February ) নির্বাচন কমিশনকে দেওয়া এক পাল্টা চিঠিতে বলেন, সম্মেলনের সঙ্গে তার কোনো সম্পর্ক নেই। এর মাধ্যমে তিনি ফৌজদারি কার্যবিধির ৪২০ ধারায় অপরাধ করেছেন। তাই আমরা তাকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছি।

উল্লেখ্য, ডঃ কামাল হোসেনের ( Dr. Kamal Hossain ) অনুমতি নিয়ে সম্মেলন করলেও, এ নিয়ে সাংবাদিকদেরকে স্পষ্ট কোনো জবাব দেননি ডঃ কামাল হোসেন। কমিটি বিষয়ে কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার একার সিদ্ধান্তে কিছু হবে না। দল সম্মেলন করেছে, সমস্ত নেতাকর্মীদের সিদ্ধান্তে কমিটি গঠন করা হয়েছে। দল যদি মনে করে আমাকে প্রয়োজন, আমি থাকবো, যদি মনে করে আমাকে প্রয়োজন নেই, আমি থাকবো না।

About bisso Jit

Check Also

মসজিদের ইমামের কোনো দোষ নেই, জবির সেই আলোচিত ছাত্রী

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমাম মো. ছালাহ উদ্দিনকে এক ছাত্রীকে ঘিরে বিতর্কিত ঘটনার জের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *