Monday , June 24 2024
Home / Countrywide / এবার চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে নারায়নগঞ্জ ছাড়ার কথা বললেন শামীম ওসমান

এবার চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে নারায়নগঞ্জ ছাড়ার কথা বললেন শামীম ওসমান

নারায়ণগঞ্জ ( Narayanganj ) ৪ আসনের সংসদ সদস্য এ কে এম শামীম ওসমান ( AKM Shamim Osman ) বলেন, আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের কোন শেষ নেই। নিজের দলের লোকেরাও এখন আমাদের সঙ্গে শত্রুতা করছেন। ইতিহাস সাক্ষী বিপক্ষ দলের লোকজন তেমন ভাবে, কখনো আমাদেরকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারেনি। নিজের চারপাশের লোকজন সারা জীবন আমাদেরকে ক্ষতিগ্রস্ত করে এসেছে। বঙ্গবন্ধু প্রানপাত থেকে শুরু করে ১৫ ই আগস্ট এর হাম লা। এই ঘটনাগুলো বড় ধরনের প্রমাণ বহন করে, বঙ্গবন্ধুর প্রান পাকিস্তানিরা নেয়নি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকেও ( Sheikh Hasina ) পরাশক্তি শেষ করার জন্য আসেনি।

নারায়ণগঞ্জ ( Narayanganj )-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান বলেন, ‘অনেকে আমাদের গা’লি গালাজ করছে। পরনিন্দা, আমার পাপ কমে যাবে, তাদের পাপ বাড়বে। কিন্তু আমি বলতে চাই পাখিরাও উড়ে আকাশে, চামচিকাও উড়ে আকাশে। কিন্তু মানুষ এটাকে পাখি বলে না, চামচিকাই বলে। অনেক পাখি কালো। বাড়ির সামনে ময়লা ফেললে ওরা এসে কা কা করে, সেই আওয়াজ শুনতে ভালো লাগে না। কিন্তু কোকিল দেখতে কাকের মতো কালো। সে ডাকলে মধুর লাগে। আমাদের অন্যতম সৌন্দর্য হল একটি কোকিল, আরকটি ঘুঘুর ডাক। কোকিলদের কাকের ডাকে সাড়া দেওয়ার দরকার নেই। কাক যদি কোকিল হতে চায় আর চামচিকা যদি পাখি হতে চায় তা আমার বলার কিছু নেই।

রোববার বিকেলে  নারায়ণগঞ্জ ( Narayanganj )ের ফতুল্লার ধর্মগঞ্জে ইউনাইটেড ক্লাবের ( United Club Dharmaganj ) কর্মী সভায় তিনি এ কথা বলেন।
শামীম ওসমান বলেন, খেতাব দিতে পারব না। আমার সাথে থাকলে খারাপ পরিস্থিতিতে পড়তে হবে। রাজনীতিতে দুই ধরনের নেতা থাকে। একজন বর্তমান নেতা, অন্যজন জননেতা। আমরা কত কোটি টাকার কাজ করেছি তার হিসাব করব। উন্নয়ন দিয়ে মানুষের মন জয় করা যায় না। মানুষ উন্নয়নের চেয়ে শান্তি বেশি চায়, বেশি সম্মান চায়, নিষিদ্ধ দ্রব্য মুক্ত সমাজ চায়। জনগণকে বুঝতে হবে আমার যতটা ক্ষমতা প্রধানমন্ত্রীরও আছে। গরীবের পেটে লা থি মা’/রবেন না।

“অনেক লোক আমার জাহাজ সম্পর্কে কথা বলছেন দুই-চারটা দেন না, আমার জন্য ভালো। সাংবাদিকদের ডাকুন। আমি আপনাকে আমার সম্পদ ফাইল দেব। তুমি তোমারটা দাও। কোনো দুর্নীতি দেখাতে পারলে রাজনীতি ছেড়ে, নারায়ণগঞ্জ ছেড়ে দেব। রাজনীতিতে অনেকেই আমাকে পছন্দ করেন না। কোন সমস্যা নেই, আমি বলছি না আমি নিখুঁত। আমরা অপরাধী মানুষ। তবে অন্তত এই বয়সে সত্য বলতে না পারলে রাজনীতি করা উচিত নয়। আমি রাজনীতি করি বলে সব বলতে পারি না। টেবিলে মাইক দিয়ে আলোচনা করা যাবে, তবে যতদূর বলতে পারি, সত্যটা বলা উচিত।

শামীম ওসমান আরও বলেন, আমাদের ৪৫টি ওয়ার্ড আছে, আমরা ফরম্যাট করেছি। সেখানে সব তথ্য থাকবে। এদের নিয়ে ন্যূনতম ৫০১ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি করুন। এখানে কোনো নেতা থাকতে পারে না। পরিবারের কোনো সদস্য অন্য কোনো দলে যোগ দিচ্ছেন কিনা তাও উল্লেখ করতে হবে। আমাদের কর্মীদের মূল্যায়ন করতে হবে। পাকিস্তানিরা বঙ্গবন্ধুর প্রা”ন হরন করতে পারে নি। যে কাজ করেছে, বাঙালিরা। নারায়ণগঞ্জে দাঁড়িয়ে একদল মানুষ বলেন, আগামী ১৫ আগস্ট এমনই হবে। এটা কোন ব্যাপার না. তারা বলতে পারে। কিন্তু যখন দেখি আমাদের পাশে লোকজন আছে তখন সন্দেহ হয়। তারা নারায়ণগঞ্জে আওয়ামী লীগের ভিত্তি দুর্বল করতে চায়। তারা আমাদের দুর্বল করে ঢাকায় আঘা’ ত করার চেষ্টা করবে। ১৫ই আগস্টে কোনো দল ছিল না। সেদিন আমরা কি করেছিলাম? বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর নেতৃত্বে নাসিম ওসমানের মতো কয়েকজন অ’/ স্ত্র নিয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাইফুল্লাহ বাদল, সাধারণ সম্পাদক শওকত আলী, আসাদুজ্জামান চেয়ারম্যান, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খোকন সাহা, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর সোহেল, মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন সাজনু, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এহসানুল হক নিপু প্রমুখ। মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সভাপতি জুয়েল হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন প্রমুখ।

সর্বশেষ শামীম ওসমান বলেন, আল্লাহর অশেষ রহমতে আমরা সকল ভাইয়েরা সংসদ সদস্য, এটি দেশবাসীর অজানা নয়। মহান আল্লাহ তাআলার রহমত ও জনগণের ভালোবাসা ছাড়া এটা হওয়া সম্ভব নয়। যতই ষড়যন্ত্র করেন না কেন, মহান আল্লাহতালা আছেন। মহান আল্লাহতালাকে খুশি করার জন্য রাজনীতি করি। কি পাব আর কি পাব না এই রাজনীতি শামীম ওসমান বা ওসমান পরিবার করে না।

 

 

About bisso Jit

Check Also

মসজিদের ইমামের কোনো দোষ নেই, জবির সেই আলোচিত ছাত্রী

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমাম মো. ছালাহ উদ্দিনকে এক ছাত্রীকে ঘিরে বিতর্কিত ঘটনার জের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *