Saturday , June 15 2024
Home / Entertainment / ইলিয়াস ভালো মানুষ, তাকে ফাঁসানো হয়েছে বললেন ইলিয়াসের আরেক স্ত্রী কারিন

ইলিয়াস ভালো মানুষ, তাকে ফাঁসানো হয়েছে বললেন ইলিয়াসের আরেক স্ত্রী কারিন

ইলিয়াস-সুবাহ এই দুইজনই শোবিজ জগতের সবার পরিচিত নাম। সম্প্রতি তারা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন। বিয়ের এক মাসের মধ্যে বিয়ে ভেঙে যায়। সুবাহা বাদী হয়ে ইলিয়াসের বিরুদ্ধে খারাপ ছবি নির্মানের আইনে যৌতুক দাবিসহ মামলা করেন। অন্যদিকে ইলিয়াসও সুভারের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। দুজনই বর্তমানে আদালতে লড়ছেন। সেখানেই তাদের সব অভিযোগের সমাধান করা হবে বলে সামাজিক গনমাধ্যম কর্মীদের কাছে মন্তব্য করেন ইলিয়াস।

তরুণ প্রজন্মের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী ইলিয়াস হোসেনের ( Elias Hossain ) সঙ্গে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন মডেল ও অভিনেত্রী সুবাহ শাহ হুমাইরা। ( Subah Shah Humaira. ) কিন্তু সেটা বেশিদিন স্থায়ী হয়নি। আপাতত তারা খোলামেলা আলোচনায় কাদা ছোড়াছুড়ি করছেন। দুজনেই আদালতে লড়ছেন। সেখানেই তাদের সব অভিযোগের সমাধান করা হবে। এ সময় মুখ খুললেন ইলিয়াসের অপর স্ত্রী কারিন নাজ। ইলিয়াস প্রথম বিয়ে করেন যুক্তরাষ্ট্রে ( United States ) বসবাসরত বাংলাদেশি ছাত্রী নিশাত আলমকে। ( Nishat Alam. ) নিশাত তখন চিকিৎসা বিজ্ঞানের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী। নিশাতের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর কারিনকে ( Karin ) বিয়ে করেন গায়ক। কারিন সুইডেনের স্টকহোমে ( Stockholm, Sweden ) থাকেন। সম্প্রতি গণমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কারিন দাবি করেন, ইলিয়াসের আগের বিয়ে (ইলিয়াস-নিশাত) মিথ্যা ছিল।

তিনি বলেন, সুবাহ ইলিয়াসকে ( Subah Elias ) নিয়ে মিথ্যা তথ্য দিচ্ছে। আমি কোথাও বলিনি যে ইলিয়াস আমার কাছ থেকে টাকা নিয়েছে। ইলিয়াস সবসময় স্বামী হিসেবে যা করা দরকার তাই করেছেন। এমনকি ইলিয়াসের প্রাক্তন বান্ধবী সম্পর্কেও মিথ্যা তথ্য দিচ্ছেন সুবাহ। সুবাহার কাছে কি নিশাতের কোন বৈধ কাবিন আছে যাতে প্রমান আছে ইলিয়াস বিয়ে করেছে? অবশ্যই না। তাই নিশাত কখনো ইলিয়াসের স্ত্রী ছিলেন না। নিশাতের সাথে কথা বললাম। তিনি নিশ্চিত করেছেন যে ইলিয়াস কখনও তার কাছে টাকা চাননি। ইলিয়াস একজন ভালো মানুষ। তাকে ফাঁসানো হয়েছে এবং হচ্ছে। সুবাহের ( Subah ) সাথে যোগাযোগের কথা উল্লেখ করে কারিন বলেন, “আমি যখন সুবাহের ( Subah ) সাথে কথা বলেছিলাম, আমি শুধুমাত্র ভদ্রতার খাতিরে বন্ধুত্বপূর্ণভাবে কথা বলেছিলাম।

কিন্তু আমি বুঝতে পারিনি যে সে আমার কথাগুলো রেকর্ড করে মানুষের কাছে ভুল ব্যাখ্যা করবে। এদিকে ইলিয়াস-সুবাহ দাম্পত্য কলহের শুরুতে ইলিয়াস বলেন, আমি কেন, তার (সুবাহ) সঙ্গে সংসারের কেউ থাকতে পারে না। নাসির খুব ভাগ্যবান, সুবাহার সাথে বিয়ে হয়নি। কয়েকদিনে যা দেখলাম, তা বলাই বাহুল্য। আমি সুবাহকে ডিভোর্স দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমি করিনের সাথে থাকতে চাই।ীঈি বিয়ের এক মাসের মধ্যে ইলিয়াস-সুবার বিয়ে ভেঙে যায়। সুভা বাদী হয়ে ইলিয়াসের বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি আইনে যৌতুক দাবিসহ মামলা করেন। অন্যদিকে ইলিয়াসও সুভারের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেছেন। দুজনই বর্তমানে আদালতে লড়ছেন। সেখানেই তাদের সব অভিযোগের সমাধান করা হবে। চলমান এই দ্বন্দ্বের মধ্যেই সামনে এসেছে নতুন খবর। ইলিয়াসের আগে আরেকটি বিয়ে করেছিলেন সুবাহ! তার বিরুদ্ধে নতুন করে প্রতারণার অভিযোগ এনেছেন তার স্বামী ইলিয়াস হোসেন। গাইবান্ধা থানায় দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে ২০১৭ সালে বিয়ের খবর আসে। সেখানে পর্নোগ্রাফি আইনে অভিযোগ করেন সুবাহ।

তরুণ প্রজন্মের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী ইলিয়াস হোসেনের সঙ্গে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন মডেল ও অভিনেত্রী সুবাহ শাহ হুমাইরা। কিন্তু সেটা বেশিদিন স্থায়ী হয়নি। আপাতত তারা খোলামেলা আলোচনায় কাদা ছোড়াছুড়ি করছেন। দুজনেই আদালতে লড়ছেন। সেখানেই তাদের সব অভিযোগের সমাধান করা হবে। এ সময় মুখ খুললেন ইলিয়াসের অপর স্ত্রী কারিন নাজ। ইলিয়াস প্রথম বিয়ে করেন যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত বাংলাদেশি ছাত্রী নিশাত আলমকে। নিশাত তখন চিকিৎসা বিজ্ঞানের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী। নিশাতের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর কারিনকে বিয়ে করেন গায়ক। কারিন সুইডেনের স্টকহোমে থাকেন। সম্প্রতি গণমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কারিন দাবি করেন, ইলিয়াসের আগের বিয়ে (ইলিয়াস-নিশাত) মিথ্যা ছিল।

তিনি বলেন, সুবাহ ইলিয়াসকে নিয়ে মিথ্যা তথ্য দিচ্ছে। আমি কোথাও বলিনি যে ইলিয়াস আমার কাছ থেকে টাকা নিয়েছে। ইলিয়াস সবসময় স্বামী হিসেবে যা করা দরকার তাই করেছেন। এমনকি ইলিয়াসের প্রাক্তন বান্ধবী সম্পর্কেও মিথ্যা তথ্য দিচ্ছেন সুবাহ। সুবাহার কাছে কি নিশাতের কোন বৈধ কাবিন আছে যাতে প্রমান আছে ইলিয়াস বিয়ে করেছে? অবশ্যই না। তাই নিশাত কখনো ইলিয়াসের স্ত্রী ছিলেন না। নিশাতের সাথে কথা বললাম। তিনি নিশ্চিত করেছেন যে ইলিয়াস কখনও তার কাছে টাকা চাননি। ইলিয়াস একজন ভালো মানুষ। তাকে ফাঁসানো হয়েছে এবং হচ্ছে। সুবাহের সাথে যোগাযোগের কথা উল্লেখ করে কারিন বলেন, “আমি যখন সুবাহের সাথে কথা বলেছিলাম, আমি শুধুমাত্র ভদ্রতার খাতিরে বন্ধুত্বপূর্ণভাবে কথা বলেছিলাম। কিন্তু আমি বুঝতে পারিনি যে সে আমার কথাগুলো রেকর্ড করে মানুষের কাছে ভুল ব্যাখ্যা করবে। এদিকে ইলিয়াস-সুবাহ দাম্পত্য কলহের শুরুতে ইলিয়াস বলেন, আমি কেন, তার (সুবাহ) সঙ্গে সংসারের কেউ থাকতে পারে না। নাসির খুব ভাগ্যবান, সুবাহার সাথে বিয়ে হয়নি। কয়েকদিনে যা দেখলাম, তা বলাই বাহুল্য। আমি সুবাহকে ডিভোর্স দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমি করিনের সাথে থাকতে চাই।

উল্লেখ্য, ইলিয়াস-সুবাহার চলমান এই বিরোধের মধ্যেই সামনে এসেছে নতুন খবর। ইলিয়াসের আগে আরেকটি বিয়ে করেছিলেন সুবাহ! তার বিরুদ্ধে নতুন করে প্রতারণার অভিযোগ এনেছেন তার স্বামী ইলিয়াস হোসেন। গাইবান্ধা থানায় দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে ২০১৭ সালে বিয়ের খবর আসে। সেখানে খারাপ ছবি নির্মানের আইনে অভিযোগ করেন সুবাহ। অপর দিকে ইলিয়াসের বিরুদ্ধে সুবাহার আনিত সকল অভিযোগ উদ্দেশ্য প্রবন বলে সামাজিক গনমাধ্যম কর্মীদের কাছে মন্তব্য করলেন কারিন।

About Syful Islam

Check Also

রাজ-বুবলীর বিয়ে, নেট দুনিয়া তোলপাড়

ঢালিউডের জনপ্রিয় দুই তারকা শরিফুল রাজ ও শবনম বুবলীকে বিয়ে করিয়ে দিয়েছে উইকিপিডিয়া! যেখানে বিশ্বের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *