Tuesday , June 25 2024
Home / Countrywide / আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীলরাই সবকিছু খেয়ে ফেলছে বললেন এমপি একরামুল

আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীলরাই সবকিছু খেয়ে ফেলছে বললেন এমপি একরামুল

নোয়াখালী-৪ ( Noakhali-4 ) আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী ( Ekramul Karim Chowdhury ) নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের ( Awami League ) আহ্বায়ক কমিটির নেতাদের নিয়ে আবারো তির্যক মন্তব্য করছেন। তিনি উক্ত মতবিনিময় সভায় বলেন, নোয়াখালী আওয়ামী লীগকে ধ্বংস করার চেষ্টা করা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, আমি জানি না এটা কি কারণে হচ্ছে। কিন্তু এটা বুঝছি যাদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তারা নোয়াখালীতে সব লুটপাট করে খাচ্ছে। সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে প্রাথমিক শিক্ষকদের সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

নোয়াখালী-৪ ( Noakhali-4 ) (সদর-সুবর্ণচর ( Sadar-Subarnachar )) আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী ( Ekramul Karim Chowdhury ) তার জেলা নোয়াখালী আওয়ামী লীগের ( Awami League ) আহ্বায়ক কমিটির নেতাদের নিয়ে আবারো তির্যক মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেন, নোয়াখালী আওয়ামী লীগকে ধ্বংসের পথে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চলছে। আমি জানি না কি করা হচ্ছে। কিন্তু আমি বুঝি যাদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তারা নোয়াখালীতে সব লুটপাট করে খাচ্ছে। সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে প্রাথমিক শিক্ষকদের সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

জেলা আওয়ামী লীগের ( Awami League ) যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট শিহাব উদ্দিন শাহীনের ( Shihab Uddin Shaheen ) দিকে ইঙ্গিত করে একরামুল করিম বলেন, আপনাদের প্রতিটি বিদ্যালয়ে পিয়ন নিয়োগে তিন থেকে পাঁচ লাখ টাকা ঘুষ নিয়ে চাকরি দেওয়া হয়েছে। জেলা আওয়ামী লীগের ( Awami League ) আহ্বায়ক ও সুবর্ণচর উপজেলার চেয়ারম্যান খায়রুল আনাম সেলিমকে উদ্দেশ্য করে এমপি একরাম ( MP Ekram ) বলেন, তার নিপীড়নে মানুষ ক্ষুব্ধ। তারা মনে করে যে তারা খুব জনপ্রিয়, মোটেই নয়; এ অঞ্চলের মানুষ তাদের পছন্দ করে না, এটাই বাস্তবতা। তিনি বলেন, আমি একরাম চৌধুরীকে খেতে আসিনি। মানুষের উপকার করেছি। সাংবাদিক ভাইরা আছেন, আপনি নিজেই জানেন, যারা আমাকে ব্যবহার করে বড়লোক হয়েছেন। আর এখন বলা হচ্ছে, শতকরা নিতাম। আরে, পার্সেন্টেজ নিলেই তো নিত, আমি তো কোনো ডিপার্টমেন্টে যাইনি, কেউ বলতে পারবে না।

উল্লেখ্য, নোয়াখালীর প্রাথমিক স্কুলে অফিস সহায়কের নিয়োগে প্রত্যেকের কাছ থেকে নগত অর্থ ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ করেছেন একরামুল করিম চৌধুরী ( Ekramul Karim Chowdhury )। সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে প্রাথমিক শিক্ষকদের মতবিনিময় সভায় তিনি এ অভিযোগ করেন। বাংলাদেশ প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক সমিতি ( Bangladesh Primary School Assistant Teachers Association ) নোয়াখালী সদর উপজেলা শাখার আয়োজনে এ সভার আয়োজন করা হয়।

About Syful Islam

Check Also

মসজিদের ইমামের কোনো দোষ নেই, জবির সেই আলোচিত ছাত্রী

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমাম মো. ছালাহ উদ্দিনকে এক ছাত্রীকে ঘিরে বিতর্কিত ঘটনার জের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *