Tuesday , June 25 2024
Home / Entertainment / বার বার পাপারাজ্জিদের বিরক্তে এবার প্রশ্ন রাখলেন রানী মুখার্জীর ছোট্ট মেয়ে

বার বার পাপারাজ্জিদের বিরক্তে এবার প্রশ্ন রাখলেন রানী মুখার্জীর ছোট্ট মেয়ে

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী রানী মুখার্জি। ( Rani Mukherjee. ) তারকারা নানা রকম কর্মকান্ডের মাধ্যমে আলোচনার শিরোনাম হয়ে থাকেন প্রায়শই। কিন্তু এবার দেখা গেল তারকারাই শুধু নয় তাদের সন্তানরাও খবরের শিরোনামে থাকে। এখন ছোটদেরও ছবি তুলতে প্রতিযোগিতা লেগে যায় পাপারাজ্জিদের ( paparazzi ) মধ্যে। তবে রানী মুখার্জির ৬ বছর বয়সী মেয়ে আদিরা এই বিষয়টি মোটেও পছন্দ করেন না। সে তার মাকে বলেই ফেলেন ভাইয়েরা খুব খারাপ।

ভারতে মিডডে-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে রানি বলেন, “আদিরা তার বাবা আদিত্য চোপড়ার ( Aditya Chopra ) মতো হয়েছে।

তার হ্যাঁমানে হ্যাঁ আর না মানেই না যে কথার কোন ব্যতিক্রম হবে না। আরেকটি মিল হলো, দুজনেই ছবি তুলতে একদমই পছন্দ করেন না। রানীকে ( queen ) বললেন, মামা, নো ছবি।

রানী বলেন, “আমি বিমানবন্দর থেকে ফিরছি। তখন পাপারাজ্জিরা বাইরে থাকে। তারা সবসময় আমার সাথে খুব ভালো ব্যবহার করে। আমি শিশুর ছবি তোলার কথা না বললে, তারা আদিরাকে প্রথমে যেতে দেয়। তারপর আমার একার ছবি তোলে। একই ঘটনা ঘটেছিল সেদিন। এবার আমার ছবি তোলার পর গাড়িতে উঠতেই আদিরা আমাকে বলে, এই ভাইয়েরা খুব খারাপ মামা, ওরা সব সময় তোমার ছবি তোলে। তারপর বলি, হ্যাঁ, এগুলো তারা করবে। ছেলেগুলো আসলেই খারাপ। সবসময় আমার ছবি তোলে। তার আবার প্রশ্ন, হ্যাঁ মা, তোমার ছবি তুলে কেন? আমি তখন উত্তর দিয়েছিলাম, বাবু কেন আমার ছবি তোলে তাও আমি জানি না।

রানী বলেন, আসলে ছোট্ট আদিরা বুঝতেই পারে না কেন ঘর থেকে বের হলেই সবাই তার ছবি তুলতে শুরু করে।

প্রসঙ্গত, তারকাদেরকে নিয়ে প্রায় আলোচনার সৃষ্টি হয় মিডিয়ায়। এই ঘটনার মাধ্যমে প্রকাশ পেল তাদের সন্তানেরাও আলোচনায় পিছিয়ে নেই। তারকাদের জীবন নিয়ে দর্শকদের কৌতুহল একটু বেশী থাকে। তারকারা বিভিন্ন ঘটনার মাধ্যমে আলোচনার ও সমালোচনার বিষয় হয়ে থাকেন। ‍প্রিয় অভিনেত্রীর প্রতিটি কাজের প্রশংসা ও সমালোচনা করেন থাকেন তার ভক্তরা।

About bisso Jit

Check Also

রাজ-বুবলীর বিয়ে, নেট দুনিয়া তোলপাড়

ঢালিউডের জনপ্রিয় দুই তারকা শরিফুল রাজ ও শবনম বুবলীকে বিয়ে করিয়ে দিয়েছে উইকিপিডিয়া! যেখানে বিশ্বের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *