Friday , April 12 2024
Breaking News
Home / National / টাকা-সম্পদ বানানোর প্রয়োজন নেই, দুনিয়া থেকে চলে গেলে কে খাবে: ওবায়দুল কাদের

টাকা-সম্পদ বানানোর প্রয়োজন নেই, দুনিয়া থেকে চলে গেলে কে খাবে: ওবায়দুল কাদের

বর্তমনা সরকারে রয়েছে আওয়ামীলীগ দল। এই দলটি টানা তিন মেয়াদে বাংলাদেশের সরকার গঠন করতে সক্ষম হয়েছে। এই দলটি অসংখ্য নেতাকর্মী রয়েছে। তবে দীর্ঘ দিন ধরে ক্ষমতায় থাকায় প্রায় সময় এই দলের অনেক নেতাকর্মী পদ-পদবি নিয়ে নিজ দলের নেতাক্রমীদের সঙ্গে বিরোধে জরিয়ে পড়ছে। অবশ্যে এই সকল কর্মাকন্ড প্রতিরোধে কেন্দ্রীয় ভাবে নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে নানা নির্দেশানাও দিয়েছে দলটি। নিজ নেতাকর্মিদের মধ্যে বিরোধের ঘটনায় দলেরও ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে। সম্প্রতি দলীয় নেতাকর্মী এবং বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বেশ কিছু কথা জানালেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং বাংলাদেশ সরকারের সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

২০২২ সালে কিছু মেগা প্রকল্প উদ্বোধন হবে, আর বিএনপি সেই সময় চোখে সর্ষেফুল দেখবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। দলের সভাপতি শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উপলক্ষে সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে কৃষি ও সমবায় উপ-কমিটি আয়োজিত এক আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিলে এ মন্তব্য করেন তিনি। কাদের বলেন, ‘আগামী বছর যখন একে একে মেগা প্রকল্পগুলো উদ্বোধন হবে, তখন বিএনপি চোখে সর্ষেফুল দেখবে। বাংলাদেশের ভোটের রাজনীতি বড় জটিল। মানুষ এখন উন্নয়ন চায়। মানুষ এখন চরিত্রবান লোককে ক্ষমতায় দেখতে চান। তিনি হলেন একমাত্র শেখ হাসিনা।’ দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের কর্মীরা অনেকেই বলেন মূল্যায়ন হয়নি, কিছু পায়নি। এ ধরনের হাহাকার শুনতে পাই। একটু বঙ্গবন্ধু পরিবারের দিকে চেয়ে দেখুন। বঙ্গবন্ধু যখন জেলে ছিলেন কীভাবে এ পরিবার চলেছে। কীভাবে বেগম মুজিব একটা পরিবারকে আগলে ধরেছেন। সেই ইতিহাস পড়ুন। ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিন। সততার রাজনীতির বিরল দৃষ্টান্ত বঙ্গবন্ধুর পরিবার। এ থেকে আমাদের শিক্ষা নিতে হবে।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা ছেলে-মেয়েদের দিয়ে বিকল্প কোনো পাওয়ার হাউস বা হাওয়া ভবন নির্মাণ করেননি। তিনি তাদের জ্ঞানে গরিমায়, মেধায়-পড়াশোনায় সমৃদ্ধ করেছেন। কাদের বলেন, ‘আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের আমি বলবো হাহাকার করছেন কেন? বাংলাদেশে এখন উপার্জনে, বেঁচে থাকার অনেক পথ, অনেক দুয়ার শেখ হাসিনা খুলে দিয়েছেন। টাকা-পয়সার দিকে চোখ দিয়ে লাভ নেই। বঙ্গবন্ধু পরিবারের দৃষ্টান্ত অনুসরণ করুন। নেত্রীর দিকে তাঁকান। টাকা-পয়সা সম্পদের দিকে তাকাবেন না। তিনি বলেন, আমার অবাক লাগে কিছু কিছু মানুষ আঙুল ফুলে কলাগাছ হয়েছে। শুধু টাকা আর টাকা। সম্পদ আর সম্পদ। দেশে সম্পদ, বিদেশে সম্পদ। এদের এ বেপরোয়া লোভ-লালসার যেন কোনো শেষ নেই। আমি মাঝে মাঝে ভাবি জীবন উপভোগের জন্য এদের আর কত টাকা দরকার? কত সম্পদের দরকার। সবাইকে আদর্শের রাজনীতি করার আহ্বান জানিয়ে কাদের বলেন, বেঁচে থাকার জন্য টাকা ও সম্পদ বানানোর প্রয়োজন নেই। দুনিয়া থেকে চলে গেলে এগুলো কে খাবে? এত টাকা এত সম্পদের কি প্রয়োজন। মিনিমাম যেটুকু প্রয়োজন সচ্ছলতার জন্য, সেইটুকু অর্জন করেন। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের শেখ হাসিনার সততা থেকে শিক্ষা নেওয়ার আহ্বান করেন কাদের। বলেন, ‘যার টাকা-পয়সার প্রতি লোভ নেই। বাংলাদেশের বহু গরিব মানুষ শেখ হাসিনার সাহায্যে চলে। বহু অসুস্থ মানুষকে চিকিৎসার ব্যবস্থা করে দেন।’

কাদের বলেন, ‘এ দেশের রাজনীতিতে পঁচাত্তর পরবর্তীতে সবচেয়ে ঝুঁকিময় জীবন যে রাজনৈতিকের তার নাম শেখ হাসিনা। বার বার ষড়যন্ত্রের রাজনীতির শিকার হয়েছেন তিনি। তার জীবনের ওপর বারে বারে আ/ঘা/ত করা হয়েছিলো। অন্তত ২০ বার হ/ত্যা/র চেষ্টা করা হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘এখনও ষড়/য/ন্ত্রে/র বু/লে/ট তার পিছু ছাড়েনি। কিন্তু শেখ হাসিনা ভয়কে জয় করেছেন। বাবা বঙ্গবন্ধুর মতো ভয়কে জয় করে, স্মিতহাস্যে সব ষড়যন্ত্র মাড়িয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির নেতা কে হবেন তা জানতে চেয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বিএনপিকে প্রশ্ন করতে চাই এবং বলতে চাই। আগামী নির্বাচনে আপনাদের নেতা কে? আন্দোলনে আপনাদের নেতা কে? কাকে ঘিরে আন্দোলন করবেন? কাকে ঘিরে সরকার গঠন করবেন? আমরা বলে দিচ্ছি আমাদের নেতা হচ্ছেন শেখ হাসিনা।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, শেখ হাসিনার বিকল্প একজন নেতা আপনারা (বিএনপি) দেখান। একজনকে দেখাবেন। পলাতক, দণ্ডিত আসামি। তিনি আপনাদের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী। এটা কি বাংলাদেশের মানুষ গ্রহণ করবে? মানুষ এতো বোকা নয়। মানুষ জানে বিএনপিকে ভোট দিয়ে লাভ নেই। তিনি বলেন, ‘বিএনপি আগামী নির্বাচনে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার জন্য বিভিন্ন দলকে ডাক দিয়েছেন। গতবারও ড.কামাল হোসেনের নেতৃত্বে একটা ঐক্য করেছিলেন। সেই ঐক্যের ফলাফলও এ দেশের মানুষ দেখেছে।’

রাজনৈতিক অঙ্গনে প্রথম সারির অবস্থানে রয়েছে আওয়ামীলীগ ও বিএনপি দল। প্রায় সময় এই দলের নেতাক্রমীরা নানা ইস্যু নিয়ে একে অন্যের আলোচনা-সমালোচনায় লিপ্ত হয়ে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় এবার আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং বাংলাদেশ সরকারের সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বিএনপি দলের উদ্দেশ্যে বলেছেন বিএনপি চোখে সর্ষেফুল দেখবে ২০২২ সালে কিছু মেগা প্রকল্পের উদ্বোধন দেখে।

About

Check Also

ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে এবার ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বিজ্ঞপ্তি

পবিত্র ঈদুল ফিতরের তারিখ নির্ধারণে মঙ্গলবার বৈঠকে বসবে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি। ধর্ম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *