Tuesday , June 25 2024
Home / Abroad / বাংলাদেশি অভিবাসী ব্যবসায়ীদের জন্য সুসংবাদ দিল সৌদি সরকার

বাংলাদেশি অভিবাসী ব্যবসায়ীদের জন্য সুসংবাদ দিল সৌদি সরকার

বিশ্বের উন্নত দেশ গুলোর মধ্যে একটি সৌদি আরব। বর্তমান সময়ে বিশ্বের স্বলপোন্নত দেশ গুলো থেকে অসংখ্য মানুষ নিজেদের ভাগ্যের পরিবর্তন এর জন্য দেশটিতে পাড়ি জমাচ্ছে। এমনকি বিশ্বের অনেক দেশের ব্যবসায়ীরাও সৌদি আরবে নানা ধরনের ব্যবসায়কার্য পরিচালনা করছে। এই তালিকায় রয়েছে বাংলাদেশীরাও। তবে সম্প্রতি দেশটিতে থাকা সকল অভিবাসী ব্যবসায়ীদের জন্য নতুন নীতিমালা প্রনয়ন করেছে।

সৌদি আরবে বসবাসরত বাংলাদেশি অভিবাসীদের ব্যবসা নিবন্ধনে সকল সহযোগিতা নিশ্চিত করবে সৌদি সরকার। গত ২৮ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার রিয়াদ দূতাবাসের সাথে ওয়েবিনারে এক মতবিনিময় সভায় একথা জানান সৌদি আরবের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি ও বাণিজ্যিক গোপনীয়তা বিরোধী আইনের জাতীয় কর্মসূচীর নির্বাহী পরিচালক আহমেদ বিন আলী আল সুয়াইলেম। তিনি বলেন সৌদি আরবে যেসকল অভিবাসী অন্য নামে ব্যবসা করছেন তাঁদের বৈধভাবে ব্যবসা করতে হলে অবশ্যই সৌদি বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিবন্ধন করে বৈধতা নিতে হবে। সৌদি আরবে বসবাসরত বাংলাদেশীসহ অন্যান্য অভিবাসীরা যারা ব্যবসা বাণিজ্য অথবা লাভজনক আর্থিক কার্যক্রমের সাথে জড়িত আছেন তাঁদের বাণিজ্যিক গোপনীয়তা বিরোধী আইনের আওতায় ২০২২ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নিবন্ধন সম্পন্ন করতে হবে। সৌদি সরকার একে ব্যবসা বাণিজ্য সংশোধন এবং নিয়মিতকরণের সুযোগ হিসেবে দেখছে।

সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বিপিএম (বার) এ সময় উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া জেদ্দাস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল মোহাম্মদ নাজমুল হক, দূতাবাসের কর্মকর্তারা ও সৌদি আরবের বিভিন্ন প্রান্তে বসবাসরত বাংলাদেশী ব্যবসায়ীরা উক্ত ওয়েবিনারে যোগ দেন। রাষ্ট্রদূতের এক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি আহমেদ বিন আলী আল সুয়াইলেম জানান, যে সকল অভিবাসী ব্যবসায়ীরা ব্যবসা নিবন্ধনের জন্য আবেদন করবে তাঁদের অর্থের উৎস সম্পর্কে প্রশ্ন করা হবেনা। এছাড়া তাঁরা যে ভিসায়ই কর্মরত থাকুক না কেন তাঁদের ভিসার সমস্যার ও সমাধান করা হবে। ব্যবসা নিবন্ধন করা হলে তাঁরা ব্যবসার মালিকানাসহ সকল আইনগত সুবিধা প্রাপ্ত হবেন। রাষ্ট্রদূতের আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, যেকোন ব্যবসায়ী চাইলে তাঁদের অর্থ নিজ দেশে পাঠাতে পারবে, এতে কোন বাঁধা বা সীমা নেই কেবল তাঁদের অর্থের উৎস দেখাতে হবে।

সভায় রিয়াদস্থ একজন বাংলাদেশী ব্যবসায়ী তাঁর ব্যবসা পরিচালনা ও নিবন্ধন বিষয়ে সৌদি স্পন্সরের সাথে সমস্যার কথা তুলে ধরলে তাঁকে সকল সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন বাণিজ্যিক গোপনীয়তা বিরোধী আইনের জাতীয় কর্মসূচীর নির্বাহী পরিচালক আহমেদ বিন আলী আল সুয়াইলেম। তিনি জানান যেকোন বাংলাদেশী ব্যবসায়ী তাঁদের ব্যবসা নিবন্ধনে সমস্যায় পড়লে তা সমাধানের জন্য সকল সহযোগিতা নিশ্চিত করা হবে। রিয়াদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস কর্তৃক বাণিজ্যিক গোপনীয়তা বিরোধী আইন বিষয়ে সৌদি অভিবাসী ব্যবসায়ীদের সচেতন করা ও তাঁদের ব্যবসা নিবন্ধনে উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে নিয়মিত ওয়েবিনার, আলোচনা সভা, মতবিনিময়সহ বিভিন্ন কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

অভিবাসী ব্যবসায়ীদের জন্য সৌদি সরকারের দেওয়া নতুন নীতিমালায় সকল অভিবাসী ব্যবসায়ীরা বেশ উপকৃত হবে। এবং দেশটি সকল ধরনের অনিয়ম প্রতিরোধেও অগ্রনী ভূমিকা পালন করতে পারবে। ইতিমধ্যে নতুন নীতিমালার কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

About

Check Also

প্রবাসীদের জন্য সুখবর, সহজেই মিলবে ইতালি থেকে আমেরিকার ভিসা

বর্তমানে প্রায় ১৪০ হাজার প্রবাসী বাংলাদেশি ইতালিতে অবস্থান করছেন। যাদের অনেকেই দেশ থেকে অন্য দেশে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *