Friday , April 19 2024
Breaking News
Home / Countrywide / আগে বিএনপি ছিলাম কিন্তু এখনতো আওয়ামী লীগ, দোষেরতো কিছু নাই : আব্দুস সোহরাব

আগে বিএনপি ছিলাম কিন্তু এখনতো আওয়ামী লীগ, দোষেরতো কিছু নাই : আব্দুস সোহরাব

সম্প্রতি আব্দুস সোহরাব নামে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে কেন্দ্র করে গোটা এলাকাজুড়ে বইছে নানা আলোচনা-সমালোচনা। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও ক্ষমতাধর হওয়ায় নিজ ইচ্ছা মতো দল বদল করেন তিনি। আর এরই সুবাদে গত ২০১৪ সালে লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলা শাখার বিএনপির সহ-সভাপতি ছিলেন তিনি। কিন্তু দল বদল হতেই রীতিমতো নিজেকেও বদল করে ফেলেন আব্দুস সোহরাব।

জানা যায়, ১ বছর পরেই ২০১৫ সালে স্থানীয় সাংসদের হাতে ফুল দিয়ে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে বিএনপি ছেড়ে আওয়ামী লীগে যোগদান করেন বিএনপি নেতা আব্দুস সোহরাব। যোগদানের পর পরই লালমনিরহাট জেলা পরিষদ নির্বাচনে সদস্য পদে নির্বাচন করে বিজয়ী হন তিনি। এরপর জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান থেকে নৌকা মার্কার মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়ে সাপ্টিবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে মাঠে নেমেছেন আব্দুস সোহরাব। এর আগে ২০১১ সালের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন।

বিএনপির দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ২০০৯ সালে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল আদিতমারী শাখার দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে ভেলাবাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বর্তমানে আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ আলী সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন। ওই কমিটিতে আব্দুস সোহরাবকে ১নং সহ-সভাপতি নির্বাচিত করা হয়। কমিটিতে তার দলীয় পরিচিতি নম্বর-৩৫৩৮৮০৩ উল্লেখ করা হয়েছে।

 

এদিকে এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আব্দুস সোহরাব একজন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী। আর এ ব্যবসায়ীক কারণে তিনি একের পর এক দল বদল করে যাচ্ছেন। তারই ধারাবাহিকতায় বিএনপি ছেড়ে তিনি এবার আওয়ামী লীগে যোগদান করে আবারও সাপ্টিবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে মাঠে নেমেছেন। ইতোমধ্যে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন আব্দুস সোহরাবের অনেকটা নিশ্চিত হয়েছে বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছেন।

বিএনপির সাবেক নেতা ও জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুস সোহরাব বিএনপি থেকে ২০১৫ সালে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে স্থানীয় সাংসদের হাত ধরে আওয়ামী লীগে যোগদানের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘আগে বিএনপি ছিলাম কিন্তু এখনতো আওয়ামী লীগ, দোষেরতো কিছু নাই।’

এদিকে বুধবার (৬ অক্টোবর) সাপ্টিবাড়ী ইউনিয়নের পূর্বদৈলজোড় এলাকায় নির্বাচনী প্রচার-প্রচারনায় রয়েছেন বলে আব্দুস সোহরাব বিষয়টি এ প্রতিনিধিকে নিশ্চিত করেছেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগ দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থীর জন্য আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নের জন্য সাপ্টিবাড়ী ইউনিয়ন থেকে সাবেক বিএনপি নেতা আব্দুস সোহরাব ও সাপ্টিবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জলিলের নাম প্রস্তাব করে কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। তবে সাবেক বিএনপি নেতা আব্দুস সোহরাবের মনোনয়ন অনেকটা নিশ্চিত বলে সূত্রটি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফশিল অনুযায়ী দ্বিতীয় ধাপে লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন আগামী ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আসন্ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তৃণমুল থেকে ত্যাগী আওয়ামী লীগ নেতা কর্মীদের কাছ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কাছ থেকে আবেদন চাওয়া হয়েছে। কিন্তু ত্যাগী নেতাদের বাদ দিয়ে উপজেলা থেকে হাইব্রিড নেতাদের তালিকা কেন্দ্রে পাঠানোর অভিযোগ উঠেছে।

 

আর এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে আদিতমারী উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল আলমের সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য তার ব্যবহৃত মুঠো
ফোনে অনেকবার ‘কল’ করা হলেও ফোনটি রিসিভ করেননি তিনি, ফলে এ ব্যাপারে তার কাছ থেকে কোনো কিছু জানা সম্ভব হয়নি।

About

Check Also

ফের রাজধানীতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড

রাজধানীর বনশ্রীতে একটি আবাসিক ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট কাজ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *