Monday , April 15 2024
Home / Exclusive / আবরারের ঘটনার বিচার সম্পর্কে মন্তব্য করলেন ওবায়দুল কাদের

আবরারের ঘটনার বিচার সম্পর্কে মন্তব্য করলেন ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং বর্ষীয়ান নেতা ওবায়দুল কাদের আবরারের ঘটনার বিচার সম্পর্কে বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর কোনো ধরনের অপরা’ধীকে ছাড় দেওয়া হয়নি। তিনি আরও যোগ করে বলেন, বিএনপি নির্বাচনে অংশ নিবে না, কিন্তু স্বতন্ত্র পরিচয় নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে। দূর্নী’তিকে আমাদের আমলে কোনো রকম ছাড় দেওয়া হয়নি। প্রধানমন্ত্রী সাম্প্রতিক সময়ে বলেছেন যে, যারা দূর্নী’তি করবে তারা অবসরে গেলেও পার পাবেন না।

ওবায়দুল কাদের শনিবার সকালে নিজ বাসভবনে এক ব্রিফিংয়ে বিএনপিকে এই আহ্বান জানান। তিনি বলেন, বিএনপির উচিত পর্দা ছেড়ে দলীয় প্রতীক নির্বাচনে প্রকাশ্যে অংশগ্রহণ করে সৎ সাহস দেখানো।

শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়ন-অর্জনে দেশের মানুষ খুশি দাবি করে ওবায়দুল কাদের বলেন, সেজন্যই বিএনপির আ’/ন্দো’/লনের জনগণ সাড়া দেবে না। বিএনপির নিরপেক্ষ সরকারের দাবিতে এক দ’ফার আ’/ন্দো’লনের রঙিন খোয়াবও অচিরেই দুঃস্বপ্নে রূপ নেবে। পরবর্তী নির্বাচনের ব্যাপারে সংবিধানের বাইরে যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

আবরার হ’/’ত্যা নিয়ে বিএনপি মহাসচিবের বক্তব্য প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, তাদের শাসনামলে অপ’কর্মের জন্য দলীয় একজন লোকেরও বিচার হয়েছে? কোনো নজির দেখাতে পারবেন? শেখ হাসিনার সরকারই বিশ্বজিৎ ও বরগুনার রিফাত হ’/’ত্যার বিচার করেছে। দলীয় পরিচয়ে কাউকে ছাড় দেওয়া হয়নি উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আবরার হ’/’ত্যা মাম’লায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ব্যবস্থা নিয়েছে। সাংগঠনিক ও দলীয়ভাবেও ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, আবরারের ঘটনার পর সমগ্র দেশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের রাজনীতির বিষয়টি আলোচনায় উঠে আসে। অনেকে বলেছিলেন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রাজনীতি ঠিক আছে কিন্তু সেখানে রাজনীতির মাধ্যমে মেধাবী ছাত্ররা অনেক ধরনের অপ’রা/ধের সাথেও সম্পৃক্ত হচ্ছেন। যেটা তাদের বভিষ্যতকে অন্ধকারে নিমজ্জিত করে ফেলছে।

About

Check Also

থানায় ঢুকে পুলিশ সদস্যদের পেটালেন সেনা সদস্যরা, ভিডিও ভাইরাল

থানায় ঢুকে সেনা সদস্যরা পুলিশ সদস্যদের মারধর করে। ঘটনাটি ঘটেছে পাঞ্জাব প্রদেশের ভাওয়ালনগরে। পুলিশ সদস্যদের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *