Monday , June 24 2024
Home / Countrywide / বিয়ের প্রস্তাব দিতে গিয়ে কারাগারে সোলাইমান

বিয়ের প্রস্তাব দিতে গিয়ে কারাগারে সোলাইমান

বর্তমান সময়ে সমাজে প্রতারক চক্রের প্রবনতা ব্যপক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রায় সময় প্রতারক চক্র প্রতারনার জন্য নানা ধরনের কৌশল অবলম্বন করে থাকে। তবে সম্প্রতি এক প্রতারক মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে বেশ বিপাকে পড়েছে। এএসপি পরিচয়ে বিয়ের প্রস্তাব দিতে গিয়ে প্রশাসনের কাছে গ্রেফ/তা/র হয়ে কারা/গা/রে প্রতা/রক/ সোলাইমান কবির।

ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলায় সহকারী পু/লি/শ সু/পা/র (এ/এস/পি) পরিচয়ে বিয়ের প্রস্তাব দিতে এসে গ্রে/প্তা/র সোলাইমান কবির (৩৫) নামে এক যুবককে কা/রা/গা/রে পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক দেওয়ান মনিরুজ্জামান তাকে কা/রা/গা/রে পাঠানোর নির্দেশ দেন। সোলাইমান কবির শেরপুরের ঝিনাইগাতি উপজেলার কুচনিপাড়া এলাকার শাহজাহান মিয়ার ছেলে। এর আগে সোমবার (১১ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে তরুণীর বাড়ি থেকে তাকে গ্রে/প্তা/র করা হয়।

ফুলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ও/সি) আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, সোলাইমান কবিরের ৫ দিনের রি/মা/ন্ড আবেদন করে মঙ্গলবার আদালতে সোপর্দ করা হয়। পরে বিচারক তাকে কা/রা/গা/রে পাঠানোর নির্দেশ দেন। ফুলপুরের অনার্স পড়ুয়া এক তরুণীর সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পরিচয় হয় সোলাইমানের। নিজেকে ৪০তম বিসিএসের এ/এস/পি পরিচয়ে বিয়ের প্রস্তাব দেন তিনি। পরে সোলায়মানকে বাড়িতে এসে বিয়ের প্রস্তাব দিতে বলেন ওই তরুণী। একাই ফুলপুরে বিয়ের প্রস্তাব দিতে আসলে তার কথাবার্তায় সন্দেহ হয় তরুণীর বাবার। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে তাকে গ্রে/প্তা/র করে। ওসি জানান, গ্রে/প্তা/রে/র পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করে সোলায়মান বলেছেন, তিনি প্রতারণা করে বিয়ের জন্য নিজেকে এ/এস/পি পরিচয় দেন। পরে তার নামে ফুলপুর থানায় প্রতারণা মামলা করে আদালতে পাঠানো হয়।

দেশের প্রশা/স/ন বর্তমান সময়ে সমাজে নানা অনিয়ম দমনে কঠোর অবস্থানে রয়েছে। ইতিমধ্যে অসংখ্য প্রতারকদের গ্রে/ফ/তা/র করে আইনের কাঠগড়ায় দাঁড় কড়িয়েছে প্রশাসন। এছাড়াও প্রশাসন অনিয়ম দমনে তাদের অভিযান কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে।

About

Check Also

মসজিদের ইমামের কোনো দোষ নেই, জবির সেই আলোচিত ছাত্রী

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমাম মো. ছালাহ উদ্দিনকে এক ছাত্রীকে ঘিরে বিতর্কিত ঘটনার জের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *