Sunday , May 19 2024
Breaking News
Home / National / অবশেষে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দেওয়া প্রস্তাবে সম্মতি দিলেন প্রধানমন্ত্রী

অবশেষে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দেওয়া প্রস্তাবে সম্মতি দিলেন প্রধানমন্ত্রী

সমগ্র দেশ জুড়ে দীর্ঘ ১৮ মাস ধরে সকল সরকারি-বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল কোভিড১৯ ভাইরাসের সং/ক্র/ম/নে। তবে ১২ই সেপ্টমবার বেশ কিছু নির্দেশনার মধ্যে দিয়ে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চালু হয়েছে। এবং সকল শ্রেনীর পরীক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার লক্ষ্যে পদক্ষেপ গ্রহন করেছে শিক্ষা মন্ত্রনালায়। তবে পিইসি ও ইবতেদায়ি পরীক্ষা নিয়ে সংকট দেখা দেয়। এক্ষেত্রে এই পরীক্ষা বাতিল প্রসঙ্গে এক প্রস্তাব পাঠায় শিক্ষা মন্ত্রনালায় প্রধানমন্ত্রীর কাছে। অবশেষে ঐ প্রস্তাবে সায় দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

চলতি বছরের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) ও ইবতেদায়ি পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। এ সংক্রান্ত ফাইলে অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। রোববার (১৭ অক্টোবর) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। প্রতি বছরের নভেম্বরে পিইসি ও ইবতেদায়ি পরীক্ষা শুরু হলেও এ বিষয়ে এ বছর আগে থেকে সেভাবে প্রস্তুতি নেওয়া হয়নি। তাই চলতি বছরের পঞ্চম শ্রেণির সমাপনী পরীক্ষা বাতিল করতে ৭ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রস্তাব পাঠায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। এ প্রস্তাবে সায় দিয়েছে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়।

প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো প্রস্তাবের সারসংক্ষেপে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাস সং/ক্র/ম/ণ/জ/নি/ত কারণে গত বছরের ১৮ মার্চ থেকে এ বছরের ১১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত শ্রেণিকক্ষে পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়। টেলিভিশন, রেডিওসহ নানা মাধ্যমে শিক্ষা কার্যক্রম চালু ছিল। তবে আন্ত মন্ত্রণালয় সভার সিদ্ধান্তে গত ১২ সেপ্টেম্বর থেকে স্কুল খোলা হয়েছে। এখন ২০২১ শিক্ষাবর্ষের মাত্র দু-তিন মাস অবশিষ্ট আছে। এই স্বল্প সময়ের মধ্যে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার প্রশ্নপত্র তৈরি ও মুদ্রণ, দেশব্যাপী একযোগে এই পরীক্ষা পরিচালনা করা এবং নির্ধারিত সময়ে ফল প্রকাশ করা কষ্টসাধ্য হবে। করোনা সং/ক্র/ম/ণ/জ/নিত কারণে ২০২০ শিক্ষাবর্ষের পিইসি ও ইবতেদায়ি সমাপনীও গ্রহণ করা সম্ভব হয়নি।

সারসংক্ষেপে আরও বলা হয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ থেকেও জানানো হয়েছে, বর্তমান পরিস্থিতিতে স্বল্প সময়ে ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা গ্রহণ ও ফল প্রকাশ করা সম্ভব হবে না। এ অবস্থায় শ্রেণিকক্ষে শিখন-শেখানো কার্যক্রম বিবেচনা করে ২০২১ শিক্ষাবর্ষের পিইসি ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা গ্রহণের পরিবর্তে নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করে পরবর্তী শ্রেণিতে উন্নীত করা যেতে পারে।

দীর্ঘ দিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় শিক্ষা খাতে নানা ধরনের সংকট দেখা দিয়েছে। এমনকি শিক্ষার্থীরাও নানা ধরনের দুশ্চিন্তায় ভুগছে। তবে সকল সংকট মোকাবিলায় আপ্রান ভাবে কাজ করছে বাংলাদেশের বর্তমান সরকার। এবং দ্রুত সময়ের মধ্যে সকল সংকট নিরসনের জন্য দায়িত্ব প্রাপ্ত ব্যক্তিদের প্রতি কঠোর নির্দেশনা দিয়েছেন।

About

Check Also

Andriol Testocaps 40mg Kapseln: Dosierung, Nebenwirkung & Wirkung

Andriol Testocaps 40mg Kapseln: Dosierung, Nebenwirkung & Wirkung Insbesondere dürfen schwangere Frauen keinen Kontakt mit …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *