Friday , May 24 2024
Breaking News
Home / Sports / পাপন ভাইয়ের পরামর্শ মাঝে মাঝে কাজে লাগে, এমন পরামর্শ খারাপ না: সাকিব

পাপন ভাইয়ের পরামর্শ মাঝে মাঝে কাজে লাগে, এমন পরামর্শ খারাপ না: সাকিব

বিশ্বের ক্রীড়া অঙ্গনের বহুল আলোচিত ও জনপ্রিয় একটি খেলা ক্রিকেট। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ এই খেলায় অংশগ্রহন করে থাকে। বাংলাদেশও রয়েছে এই তালিকায়। সম্প্রতি আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে স্কটল্যান্ডের কাছে হরে বেশ বিপাকে পড়েছে বাংলাদেশ। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে ওমানের বিপক্ষে জয় লাভ করেছে বাংলাদেশ। এই জয়কে ঘিরে বেশ কিছু কথা বললেন সাকিব আল হাসান।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। বোর্ড সভাপতি হলেও দলে কে থাকবে কিংবা টসে জিতে আগে ব্যাট করবে না পরে করবে এমন নানা বিষয়ে মন্তব্য করতে দেখা যায় তাকে। বিসিবি প্রধান হলেও মাঝে মাঝে টিম ম্যানেজারের ভূমিকায় থাকেন তিনি। এইতো স্কটল্যান্ডের সঙ্গে হারের পর বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কড়া বার্তা দিয়েছিলেন তিনি। তার প্রভাবও দেখা গেছে ওমানের বিপক্ষে ম্যাচে। ওমানের বিপক্ষে বাঁচা মরার লড়াইয়ের পর ২৬ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছারে বাংলাদেশ। ওমানের বিপক্ষে ২৬ রানের জয়ের ফলে বাংলাদেশ দলের বিশ্বকাপের সুপার -১২ আসের স্বপ্ন বেঁচে থাকল। এখন বিশ্বকাপে বাংলাদেশের বাকী আছে আর মাত্র একটি ম্যাচ। সেই ম্যাচটি জিততে পারলেই বাংলাদেশ বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভ এ খেলবে যদি ওমান বনাম স্কটল্যান্ডের ম্যাচে স্কটল্যান্ড ওমানকে হারায় তাহলে।

বোর্ড সভাপতির পরামর্শ ক্রিকেটারদের কেমন কাজে লাগে এমন প্রশ্নের জবাবে ওমান ম্যাচের পর সাকিব আল হাসান বলেন, ‘পাপন ভাই অনেক জড়িয়ে থাকেন। স্বাভাবিকভাবেই উনার পরামর্শ সবার সাথে শেয়ার করেন। আমরাও চেষ্টা করি পালন করার। অনেক সময় কাজে আসতে পারে, অনেক সময় কাজে না-ও আসতে পারে। মাঝেমাঝে এমন পরামর্শ খারাপ না আসলে… ভালো।’

স্কটিশদের সঙ্গে হারের পর ব্যাটিং অর্ডার এবং তিন সিনিয়র ক্রিকেটারের অ্যাপ্রোচ নিয়ে আপত্তি করেন বিসিবি সভাপতি। ওমান ম্যাচে সেখানে বেশ পরিবর্তন আসায় স্বভাবত প্রশ্ন উঠে হঠাৎ এমন করার কারণ নিয়ে। এ বিষয়ে সাকিব বলেন, ‘পরিস্থিতি অনুসারে কোচ, অধিনায়ক যাদের ভালো মনে করেছে তাদেরকেই পাঠানো হয়েছে। যারা সামর্থ্যবান ওরকম পরিস্থিতি সামাল দিতে।’ তিনি বলেন, ‘একটা সময় এমন ছিল যে আমরা ১৭০-১৮০ ও করে ফেলতে পারতাম, যদি সাবার ব্যাটিংটা ক্লিক করতো। আর সে কারণেই অনেকের ব্যাঠিং অর্ডার ওঠা নামা করেছে। কিন্তু টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এমন হয়েই থাকে। যখন একটা দল ১০-১২ ওভার ব্যাট করে এক বা দুই উইকেট থাকে তখন স্বাভাবিকভাবে ৬-৭ নম্বর ব্যাটসম্যানরা উপরের দিকে চলে আসে। আর এটা খুবই কমন প্র্যাকটিস টি-টোয়েন্টিতে।’

অবশ্যে ক্রিকেট বিশ্বে বর্তমান সময়ে প্রথম সারির দশটি দলের মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ। এমনকি এই খেলার মধ্যে দিয়ে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশ নতুন করে পরিচিতি অর্জন করতেও সক্ষম হয়েছে। এছাড়াও আর্ন্তজাতিক ভাবে ক্রিকেটের শীর্ষ খেলোয়াড়দের তালিকায় অনেকে বাংলাদেশী খেলোয়াড় রয়েছে।

About

Check Also

বড় দুঃসংবাদ মুস্তাফিজের জন্য, চুক্তি বাতিল, গ্রেপ্তার তামিম

বেশ ঘটা করেই শ্রীলঙ্কার ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি আসর এলপিএলে নাম লিখিয়েছিল ডাম্বুলা থান্ডার্স। এর মালিক ছিলেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *