Sunday , May 19 2024
Breaking News
Home / Countrywide / ৬১ লক্ষ টাকা ফিরিয়ে দেওয়া সেই সজীবকে সম্মান জানালো বিকাশ

৬১ লক্ষ টাকা ফিরিয়ে দেওয়া সেই সজীবকে সম্মান জানালো বিকাশ

দেশের বৃহত্তম মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস প্রোভাইডার বিকাশ সজীব নামে চাঁদপুরের এক অটোবাইক চালকের সততার প্রতি সম্মান জানিয়েছে। তার অটো বাইকে এক যাত্রী ভুল করে ৬১ লাখ টাকার একটি ব্যাগ ফেলে রেখে চলে যায়। ঐ যাত্রী ছিলেন একজন বিকাশ এজেন্ট। ঐ বিপুল পরিমান টাকা পাওয়া সত্বেও ঐ সৎ অটোচালক তার সততার পরিচয় দেন। তিনি নিজেই সেই টাকা তার মালিককে ফিরিয়ে দেওয়ার উদ্যোগ নেন।

গতকাল (বুধবার) বিকাশের প্রধান কার্যালয়ে সজিবকে ৫০ হাজার টাকা সন্মাননা হিসেবে দেওয়া হয়। গত বছর বিকাশ সজিবকে সম্মান জানানোর উদ্যোগ নিলেও বিশ্বব্যাপী চলমান পরিস্থিতির কারনে সেটা করতে পারেনি। এই কারনে এই বছর আনুষ্ঠানিকভাবে তার হাতে সম্মাননা তুলে দেওয়া হয়।

গত বছর চলমান পরিস্থিতির কারনে চাঁদপুর সদরে ব্যাংক থেকে ৬১ লাখ টাকা তুলে একজন বিকাশ এজেন্ট ভুল করে টাকার ব্যাগটি সজীবের অটো বাইকে রেখে চলে যান। বিকাশ এজেন্টের ফেলে যাওয়া টাকার ব্যাগটি নিয়ে বেশ কিছুক্ষণ অপেক্ষা করেন অটোবাইক চালক সজীব। টাকার প্রকৃত মালিককে খুঁজে না পেয়ে তিনি বিষয়টি তার ভগ্নিপতি আবুল কাসেমকে জানান।

সজীবের কাছে এই ঘটনা জানার পর দুইজন মিলে তাৎক্ষণিকভাবে চাঁদপুর মডেল থা’/নার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে ফোন করে টাকা পাওয়ার বিষয়টি অবহিত করেন। পরে পু’/লি’শের মধ্যস্থতায় প্রকৃত মালিকের কাছে টাকা হস্তান্তর করা হয়। এত বড় অংকের টাকা ফেরত দেয়ার ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ব্যাপক আলোচিত হয়।

চাঁদপুর জেলা সদরের পুরান বাজার এলাকায় বসবাস করা সজিব বলেন, “আমাকে যে সম্মান দেওয়া হয়েছে সেটা আমার জন্য অনেক অনেক আনন্দের একটি বিষয়। আমার ইচ্ছা আছে যাতে আমি নিজে কিছু করতে পারি। বিকাশ আমাকে সম্মাননা হিসেবে যে অর্থ দিয়েছে সেটা পেয়ে আমি খুব খুশি, এই সম্মানী অর্থ দিয়ে আমি আমার স্বপ্ন পূরন করবো। আমার স্বপ্ন আকাশ সমান নয়, যার ফলে আমার স্বপ্ন পূরনে এই অর্থ অনেক সাহায্য করবে।”

 

About

Check Also

মারা গেছেন ইসলামী আন্দোলনের ঢাকার সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যাপক বেলায়েত

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সাংগঠনিক সম্পাদক (ঢাকা বিভাগ) অধ্যাপক সৈয়দ বেলায়েত হোসেন (৫৫) আর নেই। শুক্রবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *