Monday , April 15 2024
Home / Entertainment / আমি ভাগ্যবান বুকের পিন্ডগুলো আমার নজরে এসেছিল: আনুশা

আমি ভাগ্যবান বুকের পিন্ডগুলো আমার নজরে এসেছিল: আনুশা

মুম্বাইয়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী আনুশা দান্ডেকর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রাম ওয়ালে তার জীবনের সবচেয়ে ভ’/য়ঙ্ক’র এবং সবচেয়ে কঠিন অভিজ্ঞতার বিষয়ে জানাতে গিয়ে সোজাসাপ্টা উত্তর দিয়েছেন। সেখানে তিনি তার জীবনের অন্যরকম কিছু ঘটনাও শেয়ার করেছেন। ইনস্টাগ্রামে অনুশা তার ভক্তদের বিভিন্ন ধরনের প্রশ্নের উত্তরও দিয়েছেন ।

একজন অনুরাগী অনুশাকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন, তিনি জীবনের এই সময়ের মধ্যে কখনো কাউকে ঠকিয়েছেন কিনা। উত্তরে আনুশা অকপটে এ বিষয়ে স্বীকার করে বলেছেন, “তখন আমি ২০ বছরে পা দিই। আমি ভেঙে পড়েছিলাম, এবং বিভ্রা’ন্ত ছিলাম। নিজেকে নিজের কাছ থেকে খুঁজে নেওয়ার চেষ্টা করেছিলাম। সেই খানে ছিল না কোনো ধরনের অজুহাত, শুধুমাত্র ঘটে গিয়েছিল। আমি দেরি না করে সেই মানুষটিকে জানিয়েছিলাম, সেখানেই আমি সবকিছু শেষ করে দিয়েছিলাম। তারপরও আমরা সেরা বন্ধু ছিলাম এবং এখনও বজায় আছে সেই বন্ধুত্ব।’

নিজের সাম্প্রতিক সম্পর্ক নিয়েও মুখ খুলেছেন আনুশা। তিনি লিখেছেন, ‘একা, আবেদনম’য়ী এবং স্বাধীন। টাকা উপার্জন করছি শুধু!’ এমনকি নিজের জীবনের বেশ কিছু আদর্শ চিন্তাভাবনার কথা উল্লেখ করে তিনি লিখেছেন, যথেষ্ট সাহসী তিনি এবং নিজের সিদ্ধান্তে স্থির। নিজেকে ভালোবাসেন। সেই সঙ্গে এড়িয়ে চলেন, ‘কারসা’জি’, ‘মিথ্যে সাজা’, ‘খারাপ জীবনযাপন’ এবং ‘গসিপ’ এসব।

‘সবচেয়ে বেদনাদায়ক অভিজ্ঞতা’ সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে আনুষা বলেন, ‘আমার ১৬ বছর বয়স থেকেই বুকের ওপর অল্প-বিস্তর লাম্প(মাংসপিণ্ড) ছিল। আমি ভাগ্যবান বুকের পিন্ডগুলো আমার নজরে এসেছিল। অস্ট্রেলিয়ার এক স্কুলে সেগুলো দেখা শেখানো হতো। যে কারণে আমি খুব কৃতজ্ঞ! সব স্কুলেরই এমন শেখানো উচিত’।

তিনি আরও বলেন, অপারেশনের পর অনেকগুলো লাম্প সরিয়ে ফেলতে সক্ষম হয়। কিন্তু পরে একটা বায়োপসি করে দেখতে পান, আরও বড় একটা লাম্প পাওয়া গেছে তাঁর শরীরে। সেই বায়োপসি করতে গিয়ে দারুণ ব্যথাও পেয়েছিলেন তিনি। সে সময় ক্ষণিকের জন্য অভিনেত্রীর মা দূরে ছিল। সেখানে উপস্থিত এক পুরুষ নার্স নাকি অনুষার হাত ধরে বলেন, তিনি ঠিক হয়ে যাবেন। আনুষা অবশ্য পরে সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন বলে জানান।

উল্লেখ্য, আনুশা দান্ডেকার একজন ভারতীয়-অস্ট্রেলিয়ান এমটিভি ভিজে, অভিনেত্রী এবং গায়িকা। তিনি একজন ভিজে এবং হোস্ট হিসাবে অধিক পরিচিত। এই অভিনেত্রী বেশ কয়েকটি শো হোস্ট করেছেন। আনুশা দান্ডেকর ১৯৮২ সালে সুদানের খার্তুমে একটি মারাঠি পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা শশীধর দান্ডেকর এবং মাতা সুলাভা দান্ডেকর ভারতের পুনে থেকে সেখানে বসবাস শুরু করেন। তিনি এবং তার দুই বোন অভিনেত্রী এবং মডেল শিবানী দান্ডেকার এবং অপেক্ষা দান্ডেকর অস্ট্রেলিয়ার সিডনির শহরতলি নিউ সাউথ ওয়েলসের কিংসগ্রোভে বেড়ে ওঠেন।

২০০২ সালে, মাত্র ১৯ বছর বয়সে, আনুশা বিনোদন শিল্পে ক্যারিয়ার গড়ার জন্য মুম্বাই, মহারাষ্ট্রে চলে আসেন। তিনি এমটিভির হাউস অফ স্টাইলে একজন অ্যাঙ্কর হিসাবে যুক্ত হয়েছিলেন। পরে তিনি নেটওয়ার্কের জন্য MTV ডান্স ক্রু, MTV টিন ডিভা, MTV নিউজ এবং MTV লাভ স্কুল অনুষ্ঠানের হোস্ট করেন।

About

Check Also

তাওহীদ হিরণ আর নেই

আদম সিনেমার নির্মাতা আবু তাওহীদ হিরণ মারা গেছেন। সোমবার সকালে রাজধানীর নিউ ইস্কাটনে নিজ বাসভবনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *