Sunday , May 19 2024
Breaking News
Home / Entertainment / মা হলেন অভিনেত্রী ফারজানা বিথী, নিজের নামের সঙ্গে মিলিয়ে রাখলেন মেয়ের নাম
?? ???? ????????? ??????? ????

মা হলেন অভিনেত্রী ফারজানা বিথী, নিজের নামের সঙ্গে মিলিয়ে রাখলেন মেয়ের নাম

গত ৫ নভেম্বর রাজধানী ঢাকার একটি হাসপাতালে কন্যাসন্তানের জন্ম দিয়েছেন বাংলা ছোট পর্দার অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও মডেল ফারজানা বিথী। বর্তমানে তারা দুজনেই সুস্থ আছেন। এদিকে হাসপাতাল থেকে গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চোত করেছেন গুণী এই অভিনেত্রী নিজেই। হাসপাতালে সর্বদা তাদের দেখা শোনা করছেন স্বামী আরিফ হোসাইন।

নিজের নামের সঙ্গে মিলিয়ে মেয়ের নাম রেখেছেন ফারনাজ হোসাইন আরিয়া।

ফারজানা বিথী বলেন, ‘আমি রাজকন্যার মা হয়েছি। এটিকে আমার জীবনের সবচেয়ে বড় অর্জন বলতে হবে। মেয়েকে প্রথম কোলে নেওয়ার অনুভূতি আমার সারা জীবন মনে থাকবে। আমি, আমার পরিবার সবার মনে আনন্দের জোয়ার বইছে। আমার মেয়ের জন্য সবাই দোয়া করবেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘মেয়ের মুখের দিকে তাকিয়ে মনে হচ্ছে, আমার জীবনটাই বদলে গেল। আমি খুবই এক্সাইটেড। আমার মেয়ে হয়েছে। নারী হিসেবে এটা আলাদা অনুভূতি। আমি চাইব, আমার মেয়েও যেন সব বাধা পেরিয়ে মানুষের মতো মানুষ হতে পারে।’

ফারজানা বীথি মূলত উপস্থাপনা দিয়েই পরিচিতি পেয়েছেন। মডেল হিসেবেও প্রচুর কাজ করেছেন। মুক্তির অপেক্ষায় থাকা ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ সিনেমায় আয়েশা চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। এতে অভিযুক্ত শিক্ষকের স্ত্রীর ভূমিকায় দেখা যাবে তাকে। সিনেমাটি এ মাসেই মুক্তি পাচ্ছে।

ফারজানা বীথির ভাষ্য, ‘রেহানা মরিয়ম নূর সিনেমায়ও আমি গর্ভবতী নারীর চরিত্রে অভিনয় করেছি। চরিত্রটির প্রয়োজনে হবু মায়েদের চলাফেরা, হাঁটাচলা ভালোমতো শিখতে হয়েছে। আমি খুশি, সিনেমাটি এ মাসেই মুক্তি পাচ্ছে। আমার মেয়েও এ মাসেই জন্ম নিল।’

উল্লেখ্য, দুই পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে ২০১৬ সালের ২৬ এপ্রিল জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে আরিফ হোসাইনের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন অভিনেত্রী ফারজানা। জন্মের আগে থেকেই মেয়ের নাম ঠিক করে রেখেছিলেন গুণী এই দম্পতি। আর এরই মধ্যেই মেয়ের আগমনে আনন্দের বন্যা বইছে তাদের পরিবারে।

About

Check Also

এত বড় প্রতিষ্ঠানের আড়ালে দেহ ব্যবসা! আসল সত্য প্রকাশ

“আমি আমার জীবনে এই ধরনের পরিস্থিতির প্রথম শিকার। আমারও অনেক কিছু শেখার আছে। আমি কোনো …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *