Sunday , May 19 2024
Breaking News
Home / Entertainment / সেই সম্পত্তি এখনো পাননি সাইফ, প্রতারণার শিকার হয়ে জানালেন নিজেই

সেই সম্পত্তি এখনো পাননি সাইফ, প্রতারণার শিকার হয়ে জানালেন নিজেই

২০০৫ সালে সাদ আলি পরিচালিত ‘বান্টি অউর বাবলি’ সিনেমাটি মুক্তি পাওয়ার পরপরই ব্যাপক সাড়া ফেলতে দেখা যায় ভক্ত-অনুরাগিদের মাঝে। এমনকি ব্যবসায়ের দিক দিয়েও বেশ সফলতা বয়ে আনে এ সিনেমাটি। তবে বর্তমানেও এ সিনেমাটি ভক্তদের মাঝে সমান জনপ্রিয়তার তালিকায় রয়েছে। যেখানে মাত্র ৪০০ মিলিয়ন রুপি বাজেটের এই সিনেমাটি সারাবিশ্বে আয় করেছিলো ১.১৮ বিলিয়ন রুপি। আর এরই ধারাবাহিকতা ধরে রেখে সম্প্রতি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে ছবিটির দ্বিতীয় কিস্তি ‘বান্টি অউর বাবলি ‍টু’।

বর্তমানে ‘বান্টি অউর বাবলি ‍টু’র প্রচারণা নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন সাইফ আলি খান। এরই অংশ হিসেবে সম্প্রতি ছবিটির অভিনেত্রী রানি মুখার্জির সঙ্গে এক আড্ডায় যোগ দিয়েছিলেন সাইফ। যেখানে জানা-অজানা নানা তথ্য ভক্তদের সঙ্গে শেয়ার করেছেন বলিউডের এই অভিনেতা। আর সেখানেই তাকে বলতে শোনা গিয়েছে, তিনি প্রতারণার শিকার হয়েছেন।

রানির এক প্রশ্নের উত্তরে সাইফ বলেন, ‘আমি আসলে নিজেকেই নিজে বোকা বানিয়েছি এই কিছুদিন আগে। আমি যা আয় করেছিলাম তার ৭০ শতাংশ দিয়ে একটা অ্যাপার্টমেন্ট বুক করি। আমাকে বলা হয়েছিলো তিন বছরের মধ্যেই আপনি এটা পেয়ে যাবেন। তারপরেই এল করোনা মহামারি। তবে এখন পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসলেও সেই সম্পত্তি এখনও হাতে আসেনি আমার।’

রানি তখন জানতে চান, ‘সেটা কি তোমার নতুন বাড়ি?’। এর উত্তরে সাইফ বলেন, ‘না না এটা অফিসের জন্য!’

দ্বিতীয় সন্তান জেহ আলি খান হওয়ার আগে বড় ছেলে তৈমুর আলি খানকে নিয়ে বান্দ্রায় নতুন বাড়িতে উঠেছেন সাইফ-কারিনা। তরপর নিজেদের পুরনো বাড়ি ভাড়ায় দিয়েছেন অগস্টে।

প্রসঙ্গত, দাম্পত্য কলহের জের ধরে ২০০৪ সালে অমৃতা সিংয়ের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের পর ২০১২ সালে বলিউড জনপ্রিয় অভিনেত্রী কারিনা কাপুরের সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন সাইফ আলী খান। বর্তমানে তৈমুর ও জাহাঙ্গীর নামে দুই সন্তান রয়েছে এই ঘরে। অভিনয়ের পাশাপাশি স্ত্রী-সন্তান নিয়ে বেশ ভালই রয়েছেন তিনি।

About

Check Also

এত বড় প্রতিষ্ঠানের আড়ালে দেহ ব্যবসা! আসল সত্য প্রকাশ

“আমি আমার জীবনে এই ধরনের পরিস্থিতির প্রথম শিকার। আমারও অনেক কিছু শেখার আছে। আমি কোনো …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *