Sunday , May 19 2024
Breaking News
Home / more/law / চাল কেটে মিনিকেট করা অটো রাইস মিলের বিরুদ্ধে কঠোর নির্দেশনা দিল উচ্চ আদালত

চাল কেটে মিনিকেট করা অটো রাইস মিলের বিরুদ্ধে কঠোর নির্দেশনা দিল উচ্চ আদালত

বর্তমান সময়ে সারা দেশ জুড়ে একটি সুবিধাবাধী চক্র ভোগ্যপন্যে ভেজাল দিয়ে জন সাধারনের সাথে প্রতারনা করছে। এবং হাতিয়ে নিচ্ছে বিপুল পরিমানের অর্থ। চালের ক্ষেত্রে এই সিবিধাবাধী চক্রটি বেশ সক্রীয়। চাল কেটে মিনিকেট নাজিরশাইল নামে বিক্রি করছে বাজারে একটি চক্র। এক্ষেত্রে এবার কঠোর অবস্থানে রয়েছে উচ্চ আদালত। এবং এই প্রসঙ্গে অটো রাইস মিলের বিরুদ্ধে কঠোর নির্দেশনা দিয়েছে।

যেসব অটো রাইস মিলে চাল কেটে বা ছেঁটে মিনিকেট বা নাজিরশাইল নামে বিক্রি করা হচ্ছে তাদের তালিকা চেয়েছে হাই কোর্ট। এ বিষয়ে চার মাসের মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। গতকাল জনস্বার্থে মানবাধিকার ও পরিবেশবাদী সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) করা রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের সমন্বয়ে গঠিত হাই কোর্ট বেঞ্চ রুলসহ আদেশ দেয়। এ ছাড়া চাল কেটে বা ছেঁটে উৎপাদনের কারণে জনগণের স্বাস্থ্যঝুঁকি আছে কি না এবং খাদ্যের পুষ্টিমান নষ্ট হয় কি না- সে বিষয়ে গবেষণা প্রতিবেদন দাখিলেরও নির্দেশ দিয়েছে আদালত। আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মনজিল মোরসেদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল কাজী মাইনুল হাসান। পরে মনজিল মোরসেদ জানান, বিভিন্ন অটো রাইস মিলের মাধ্যমে বাংলাদেশে উৎপাদিত বিভিন্ন চাল কেটে বা ছেঁটে পুষ্টি গুণাগুণ নষ্ট করে বাজারজাত বা বিক্রি করা হচ্ছে। এতে জনগণের স্বাস্থ্যঝুঁকি বেড়েছে। রুলে তা বন্ধে বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না এবং তা বন্ধে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না- তা জানতে চেয়েছে আদালত। একই সঙ্গে চাল কেটে বা ছেঁটে পুষ্টিগুণ নষ্ট করে বাজারজাত বা বিক্রি করা বন্ধে নির্দেশনা বা গাইডলাইন তৈরি করার কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না- তাও জানতে চেয়েছে হাই কোর্ট।

তিন সপ্তাহের মধ্যে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, স্বাস্থ্য সচিব, খাদ্য সচিব, কৃষি সচিব, বাণিজ্য সচিব, পরিবেশ অধিদফতরের ডিজি, র‌্যাব, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর, বিএসটিআই, রাইস রিসার্স ইনস্টিটিউট, কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট, সাত জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার এবং অটো রাইস মিলস মালিক সমিতির সভাপতি/সেক্রেটারিকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। আদালতে ইনডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশন, বিবিসি বাংলার প্রতিবেদন এবং খাদ্য মন্ত্রণালয়ের রিপোর্ট উপস্থাপন করে মনজিল মোরসেদ বলেন, বিশেষজ্ঞদের মতামত অনুসারে ওভার পলিশ ও ছাঁটাইয়ের কারণে চালে জিংকের পরিমাণ অনেক কমে যায়। এমনকি পুষ্টি উপাদান অনেক কমে যায়। বিশেষজ্ঞদের মতামত অনুসারে চালের ওপরের অংশ ছেঁটে ফেলার কারণে যে চাল মানুষ গ্রহণ করছে সেখানে কার্বোহাইড্রেডের অংশ বেশি। যে কারণে টাইপ টু ডায়াবেটিসে আক্রান্তের শঙ্কা বাড়ছে।

চালে ভেজাল প্রতিরোধে বিশেষ ভাবে কাজ করছে ভোক্তা অধিদফতর। এছাড়াও দেশের মানুষের স্বাস্থ্য নিরপত্তা নিশ্চিতে সকল প্রকার ভেজাল প্রতিরোধে কাজ করছে দফতরটি। এবং প্রায় সময় দেশের বিভিন্ন স্থানে ভেজাল প্রতিরোধে নানা ধরনের অভিযান পরিচালনা করছে। এবং অনেকেকেই মোটা অঙ্কে জরিমানা করছে।

About

Check Also

হাইকোর্টের পর্যবেক্ষণ: ২৮ অক্টোবরের ধ্বংসযজ্ঞে দেশকে জাহান্নামে পরিণত করা হয়

২৮ অক্টোবরের ধ্বংসযজ্ঞের মধ্য দিয়ে দেশ ও দেশের মানুষকে নরকের দিকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *