Wednesday , April 17 2024
Home / Countrywide / আমরা এখনও পিকনিক করছি, আইন বুঝি না: শাহাদাত সেলিম

আমরা এখনও পিকনিক করছি, আইন বুঝি না: শাহাদাত সেলিম

বর্তমান সময়ে শারীরিক ভাবে নানা ধরনের জটিলতায় ভুগছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। তার উন্নত চিকিৎসার জন্য বিএনপি দল নানা ভাবে চেষ্টা করছে। তবে এই বিষয়ে সরকারী ভাবে কোন সুফল মিলছে না। সম্প্রতি লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম বিএনপি দলের কর্মকান্ড এবং বেগম জিয়া প্রসঙ্গে বেশ কিছু কথা জানালেন।

২০ দলীয় জোটের শরিক দল লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (একাংশ) মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম বলেছেন, আজকে যে করুণ ইতিহাস ঘটতে যাচ্ছে— খালেদা জিয়া যদি মৃ/ত্যু/বরণ করেন, তাহলে একমাত্র সন্তান তারেক রহমান তার (খালেদা জিয়া) মুখ দেখতে পাবেন না। মৃ/ত্যু/শয্যায় একজন মা তার সন্তানকে দেখতে পাবেন না, আর আমরা এখনও পিকনিক-পিকনিক আন্দোলন করছি। আমরা আইন বুঝি না, আমরা কোনও উদাহরণ বুঝি না। আমরা নতুন উদাহরণ সৃষ্টির জন্য খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করছি।’ মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের আব্দুস সালাম হলে বাংলাদেশ জাতীয় দলের উদ্যোগে ‘খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে’ আয়োজিত আলোচনা সভায় এলডিপির মহাসচিব এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি, হয় ম/র/বো না হয় বাঁচবো। মৃ/ত্যু/র শপথ নিয়ে রাস্তায় নামতে হবে। রুখে দাঁড়াতে হবে। রুখে দাঁড়িয়ে এই সরকারের পতন ঘটাতে হবে। এই সরকারের পায়ের নিচে সামান্যতম মাটি নেই। দরকার একটা সুনির্দিষ্ট ধাক্কা। ধাক্কা দিলেই এই সরকারের পতন ঘটে যাবে। জনগণের রাজত্ব কায়েম হবে। খালেদা জিয়া মুক্ত হয়ে চিকিৎসা করাতে পারবেন।’ শাহাদাত হোসেন সেলিম আরও বলেন, ‘আমাদের এখনও ঘুরে দাঁড়ানোর সময় আছে। হায়েনার কাছে আমরা জীবন ভিক্ষা চাইলে, জীবন ভিক্ষা পাবো না। এই হায়েনা থেকে মুক্তি পেতে পিকনিক- পিকনিক ধরনের যে আলোচনা সভায় আমরা বক্তব্য রাখছি, আপনারা খোশ গল্প করছেন, আমরা কে আগে বক্তব্য রাখবো, কে পরে বক্তব্য রাখবো আমরা সেটা নিয়ে মাথা ঘামাই।’ বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ করে সেলিম বলেন, ‘এই সরকারের পতন ছাড়া আমাদের আর কোনও বিকল্প নেই। নেতাদের বলতে চাই, সরকার পতনের আন্দোলনের ডাক দেন। হয়তো ২০ দলে আমাদের তেমন শক্তি নেই, তবুও শেষ পর্যন্ত আমরা আপনাদের সঙ্গে থাকতে চাই।’

সম্প্রতি বেগম জিয়ার দ্রত উন্নত চিকিৎসা সেবা নিশ্চিতকরনে বেশ সরব হয়েছে বিএনপি দল। এবং এই বিষয়ে আইনমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি দিয়েছে বিএনপির একদল আইনজীবি। এবং রাষ্ট্রপতির কাছেও এই বিষয়ে আবেদেন করেছে দলটি। তবে এখনও সরকারের পক্ষ থেকে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত প্রক্রীয়াধীন রয়েছে।

About

Check Also

এবার সতর্কবার্তা দিল জার্মান দূতাবাস

ঢাকার জার্মান দূতাবাস অর্থের বিনিময়ে দূতাবাসের ভিসা অ্যাপয়েন্টমেন্ট বা জার্মান চাকরির চুক্তির প্রতিশ্রুতি দেয় এমন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *