Saturday , June 15 2024
Home / Countrywide / তিনবার ইউপি নির্বাচনে হারা মদন হলেন উপজেলা চেয়ারম্যান

তিনবার ইউপি নির্বাচনে হারা মদন হলেন উপজেলা চেয়ারম্যান

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে তিনবার পরাজিত হওয়া মদন মোহন রায় দেবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৫ হাজার ভোটের ব্যবধানে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন।

গত মঙ্গলবার (২১ মে) সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত দেবীগঞ্জ উপজেলার ৬৭টি কেন্দ্রে বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ চলে। রাত সাড়ে ১০টায় ভোট গণনা শেষে উপজেলা পরিষদ হলরুমে সহকারী রিটার্নিং অফিসার মোঃ শরিফুল আলম মদন মোহন রায়কে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান ঘোষণা করেন।

মদন মোহন রায় দেবীগঞ্জ উপজেলার শালডাঙ্গা ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি হিসেবে দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করেন। ২০২২ সালের শালডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় নির্দেশ উপেক্ষা করে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। এর আগে তিনি শালডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে পরাজিত হন।

তিনবার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পরাজিত হয়েও ভেঙে পড়েননি মদন মোহন রায়। তিনি ২১ মে, ২০২৪ সালে অনুষ্ঠিত দেবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে হেলিকপ্টার প্রতীক নিয়ে অংশগ্রহণ করেন। নির্বাচনের শুরু থেকেই ভোটারদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হন তিনি। ফলে মদন মোহন রায় ৫ হাজার ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়ে প্রথমবারের মতো উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

নির্বাচনে হেলিকপ্টার প্রতীক নিয়ে মদন মোহন রায় পেয়েছেন ৩৪ হাজার ৭৪২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক হাসনাত জামান চৌধুরী জর্জ পেয়েছেন ২৯ হাজার ৭০৩ ভোট।

মদন মোহন রায় প্রথমবার উপজেলা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করলেও দীর্ঘদিন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জয়লাভ না করে বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করেন। নির্বাচনে জয়ী হওয়ার অনুভূতি জানতে চাইলে তিনি ফোনে কালবেলা প্রতিবেদককে বলেন, প্রথমে দেবীগঞ্জের সকল ভোটারদের ধন্যবাদ জানাই যারা তাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে আমাকে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত করেছেন। এ বিজয় আমার একার নয়, এ বিজয় দেবীগঞ্জবাসীর। ভোটাররা অনেক প্রত্যাশা নিয়ে আমাকে ভোট দিয়েছেন, আমি সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা পূরণ করব এবং দায়িত্ব নিয়ে দেবীগঞ্জ উপজেলার সুপরিকল্পিত উন্নয়নে কাজ করব।

এদিকে দেবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মঞ্জুরুল ইসলাম মনু ৪৪ হাজার ১০ ভোট পেয়ে ভাইস চেয়ারম্যান এবং বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ৪২ হাজার ৪৪৯ ভোট পেয়ে দ্বিতীয়বারের মতো মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

উল্লেখ্য, দেবীগঞ্জে মোট ভোটার এক লাখ ৯৮ হাজার ৯৮৮ জন। এবারের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৫৫ দশমিক ৪৫ শতাংশ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন।

About Nasimul Islam

Check Also

মসজিদের ইমামের কোনো দোষ নেই, জবির সেই আলোচিত ছাত্রী

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমাম মো. ছালাহ উদ্দিনকে এক ছাত্রীকে ঘিরে বিতর্কিত ঘটনার জের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *