Saturday, February 4, 2023
বাড়িopinionজিএম এম কাদেরের জামাতাকে খুশি করার জন্য বুবলীকে স্ট্যান্ডবাই করেছে চয়নিকা চৌধুরী...

জিএম এম কাদেরের জামাতাকে খুশি করার জন্য বুবলীকে স্ট্যান্ডবাই করেছে চয়নিকা চৌধুরী : মিলি

Ads

শাকিব বুবলির গোপন বিয়ের বিষয় নিয়ে বাংলাদেশের বিনোদন জগতে নানা আলোচনা তৈরী হয়েছিল এবং সেই সাথে দেখা গেছে এই বিষয়টি নিয়ে তারকাদের মধ্যে নানা প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছিল তবে কিছুদিন পর অবশ্য বুবলি নিজেই জানিয়েছেন তিনি সবকিছু উপেক্ষা করে আবার অভিনয়ে ফিরছেন। এই প্রসঙ্গে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন লেখিকা মিলি সুলতানা। নিচে তার সেই স্ট্যাটাসটি তুলে ধরা হল –

ক্লেপ্টোম্যানিয়া (Kleptomania) শব্দের অর্থ চৌর্যোন্মাদ। আজীব এই রোগটি চয়নিকা মাসি ও তমালিকা দু’বোনেরই আছে। ক্লেপ্টোম্যানিয়া যাদের আছে তারা চুরির প্রতি পাগলের মতো তীব্র আকাঙ্ক্ষা ধারণ করে। অন্যের জিনিস চুরিকে বাধ্যবাধকতা বলে মনে করে। চুরি না করা পর্যন্ত তারা শান্তি পায়না। চয়নিকার নাটক টেলিফিল্মের নায়িকারা শ্যুটিং স্পটে তাদের ব্যাগে গচ্ছিত জিনিসপত্র সাবধানে রাখেন মাসির নজর লুকিয়ে। ক্লেপ্টোম্যানিয়ার রোগী চুরির জিনিস তারা নিজেরা ব্যবহার করে তা নয়। চুরির পর সেই জিনিসটা হয়ত ফেলে দেয়। নয়ত কাউকে দিয়ে দেয়। চৌর্যোন্মাদভোগী চয়নিকা তমালিকার সেসব কাহিনী আরেকদিন বয়ান করব।

অনেকেই জানেন অর্থ জালিয়াতির মামলায় চয়নিকা মাসিকে প্রতি সপ্তাহে কোর্টে গিয়ে হাজিরা দিতে হচ্ছে। টেলিফিল্ম বানানোর নাম করে নিউইয়র্ক প্রবাসী রুমি আব্দুল্লাহ নামে এক ভদ্রলোকের ২১/২২ লাখ টাকা সাবাড় করে দিয়েছেন বেদরদী মাসি। মাসির খাল্লিবাল্লি বিজনেসের রানিং ইনভেস্টমেন্টের নাম হল স্পার্ম ডোনারের পরিত্যক্ত জিনিস বুবলী। মাসির “প্রহেলিকা” প্রজেক্টে বুবলীকে নিয়েছেন বিশেষ উদ্দেশ্যে। বুবলীকে ভেট হিসেবে স্ট্যান্ডবাই রেখেছেন অভিনেতা মাহফুজ আহমেদের খুশি করার জন্য। এরশাদের ভ্রাতা জিএম এম কাদেরের জামাতা মাহফুজ আহমেদের স্ত্রী ইশরাত জাহান কাদের সন্তানদের নিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় বসবাস করছেন। মাহফুজ ছয়মাস দেশে থাকেন, ছয়মাস অস্ট্রেলিয়া বউবাচ্চার সাথে থাকেন। মাহফুজ আহমেদ উশৃঙ্খল ব্যক্তি নন। ফষ্টিনষ্টি করে বেড়ান না। তবে সামনে যদি কেউ সুস্বাদু গরমাগরম কাচ্চি বিরিয়ানি সাজিয়ে রাখলে যে কখনো কাচ্চি খায়নি সে-ও খেতে চাইবে। এখন গোস্তাখি কার? কাচ্চি সাজানেওয়ালার নাকি কাচ্চি খানেওয়ালার?? তাই প্রহেলিকার ছুঁতোয় বুবলীকে ফিট করে দিয়েছেন মাহফুজের জন্য।

টিভি স্টারদের জীবনে মাসির আছে ব্যাপক অবদান। ২০০৭ সালে মাসি কিন্তু মাহফুজের জীবনে ডিস্টার্বিং অধ্যায় এনে দিয়েছিলেন তারিনকে দিয়ে। দু’জনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে দিয়েছিলেন। মাহফুজ তারিনের কাছে নিজেকে আনহ্যাপি ম্যান হিসেবে রিপ্রেজেন্ট করেছিলেন। তারিন চেয়েছিলেন তাদের প্রেমজ সম্পর্ক পরিণতি পাক। কিন্তু মাহফুজ তা করেননি। তিনি স্ত্রী সন্তান ছাড়তে রাজি ছিলেন না। প্রেমের বেগতিক পরিণতি আঁচ করে তারিন সরে যান মাহফুজের জীবন থেকে। তবে এরপর থেকে মাহফুজের স্ত্রী ইশরাত জাহান সতর্ক পদক্ষেপ নিয়ে ফেলেন- মাহফুজকে তারিনের সাথে অভিনয় করতে দিতেন না। যদিও একসাথে কিছু কাজ তাদেরকে করতে হয়েছিল। বুবলী আপাতদৃষ্টিতে মালিকানাহীন রিজেক্টেড ফোল্ডারে আছেন। তাই চয়নিকা মাসি বুবলীকে নিরাপদ পণ্য হিসেবে বিনিয়োগ করেছেন।

শাকিব বুবলির গোপন বিয়ের বিষয় নিয়ে বাংলাদেশের বিনোদন জগতে নানা আলোচনা তৈরী হয়েছিল এবং সেই সাথে দেখা গেছে এই বিষয়টি নিয়ে তারকাদের মধ্যে নানা প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছিল তবে কিছুদিন পর অবশ্য বুবলি নিজেই জানিয়েছেন তিনি সবকিছু উপেক্ষা করে আবার অভিনয়ে ফিরছেন। এই প্রসঙ্গে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন লেখিকা মিলি সুলতানা। নিচে তার সেই স্ট্যাটাসটি তুলে ধরা হল –

ক্লেপ্টোম্যানিয়া (Kleptomania) শব্দের অর্থ চৌর্যোন্মাদ। আজীব এই রোগটি চয়নিকা মাসি ও তমালিকা দু’বোনেরই আছে। ক্লেপ্টোম্যানিয়া যাদের আছে তারা চুরির প্রতি পাগলের মতো তীব্র আকাঙ্ক্ষা ধারণ করে। অন্যের জিনিস চুরিকে বাধ্যবাধকতা বলে মনে করে। চুরি না করা পর্যন্ত তারা শান্তি পায়না। চয়নিকার নাটক টেলিফিল্মের নায়িকারা শ্যুটিং স্পটে তাদের ব্যাগে গচ্ছিত জিনিসপত্র সাবধানে রাখেন মাসির নজর লুকিয়ে। ক্লেপ্টোম্যানিয়ার রোগী চুরির জিনিস তারা নিজেরা ব্যবহার করে তা নয়। চুরির পর সেই জিনিসটা হয়ত ফেলে দেয়। নয়ত কাউকে দিয়ে দেয়। চৌর্যোন্মাদভোগী চয়নিকা তমালিকার সেসব কাহিনী আরেকদিন বয়ান করব।

অনেকেই জানেন অর্থ জালিয়াতির মামলায় চয়নিকা মাসিকে প্রতি সপ্তাহে কোর্টে গিয়ে হাজিরা দিতে হচ্ছে। টেলিফিল্ম বানানোর নাম করে নিউইয়র্ক প্রবাসী রুমি আব্দুল্লাহ নামে এক ভদ্রলোকের ২১/২২ লাখ টাকা সাবাড় করে দিয়েছেন বেদরদী মাসি। মাসির খাল্লিবাল্লি বিজনেসের রানিং ইনভেস্টমেন্টের নাম হল স্পার্ম ডোনারের পরিত্যক্ত জিনিস বুবলী। মাসির “প্রহেলিকা” প্রজেক্টে বুবলীকে নিয়েছেন বিশেষ উদ্দেশ্যে। বুবলীকে ভেট হিসেবে স্ট্যান্ডবাই রেখেছেন অভিনেতা মাহফুজ আহমেদের খুশি করার জন্য। এরশাদের ভ্রাতা জিএম এম কাদেরের জামাতা মাহফুজ আহমেদের স্ত্রী ইশরাত জাহান কাদের সন্তানদের নিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় বসবাস করছেন। মাহফুজ ছয়মাস দেশে থাকেন, ছয়মাস অস্ট্রেলিয়া বউবাচ্চার সাথে থাকেন। মাহফুজ আহমেদ উশৃঙ্খল ব্যক্তি নন। ফষ্টিনষ্টি করে বেড়ান না। তবে সামনে যদি কেউ সুস্বাদু গরমাগরম কাচ্চি বিরিয়ানি সাজিয়ে রাখলে যে কখনো কাচ্চি খায়নি সে-ও খেতে চাইবে। এখন গোস্তাখি কার? কাচ্চি সাজানেওয়ালার নাকি কাচ্চি খানেওয়ালার?? তাই প্রহেলিকার ছুঁতোয় বুবলীকে ফিট করে দিয়েছেন মাহফুজের জন্য।

টিভি স্টারদের জীবনে মাসির আছে ব্যাপক অবদান। ২০০৭ সালে মাসি কিন্তু মাহফুজের জীবনে ডিস্টার্বিং অধ্যায় এনে দিয়েছিলেন তারিনকে দিয়ে। দু’জনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে দিয়েছিলেন। মাহফুজ তারিনের কাছে নিজেকে আনহ্যাপি ম্যান হিসেবে রিপ্রেজেন্ট করেছিলেন। তারিন চেয়েছিলেন তাদের প্রেমজ সম্পর্ক পরিণতি পাক। কিন্তু মাহফুজ তা করেননি। তিনি স্ত্রী সন্তান ছাড়তে রাজি ছিলেন না। প্রেমের বেগতিক পরিণতি আঁচ করে তারিন সরে যান মাহফুজের জীবন থেকে। তবে এরপর থেকে মাহফুজের স্ত্রী ইশরাত জাহান সতর্ক পদক্ষেপ নিয়ে ফেলেন- মাহফুজকে তারিনের সাথে অভিনয় করতে দিতেন না। যদিও একসাথে কিছু কাজ তাদেরকে করতে হয়েছিল। বুবলী আপাতদৃষ্টিতে মালিকানাহীন রিজেক্টেড ফোল্ডারে আছেন। তাই চয়নিকা মাসি বুবলীকে নিরাপদ পণ্য হিসেবে বিনিয়োগ করেছেন।

Looks like you have blocked notifications!
Ads
[json_importer]
RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Most Popular

Recent Comments