Sunday, February 5, 2023
বাড়িAbroadতাকসিম এর রেশ কাটতে না কাটতে এমপি গোলাপের ৪০ লাখ ডলারের বাড়ি...

তাকসিম এর রেশ কাটতে না কাটতে এমপি গোলাপের ৪০ লাখ ডলারের বাড়ি নিয়ে নিউ ইয়র্কে তোলপাড়

Ads

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং গণমাধমে আলোচনা তৈরী করেছিল ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ইঞ্জিনিয়ার তাকসিম এ খান যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক শহরে ১৪টি বাড়ি কেনার খবর। এর পর এই খবর নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে নানা প্রতিক্রিয়া দেখা যায় , ঢাকার দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশের পর নিউইয়র্কে বাংলাদেশি কমিউনিটি সক্রিয় হয়ে ওঠে। তার বাড়ি কেনা এখন নিউইয়র্কের আলোচনায়। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হতেই সংসদ সদস্য আবারো তোলপাড় শুরু করেন। আবদুস সোবহান মিয়া (রোজ) যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে ৪ মিলিয়ন ডলার ব্যয়ে বেশ কয়েকটি বাড়ি কিনেছেন বলে জানা গেছে।

আবদুস সোবহান মিয়া (রোজ) নিউইয়র্কে ৪ মিলিয়ন ডলার ব্যয়ে বেশ কয়েকটি বাড়ি কিনে দেশের বাইরে তার এত সম্পদ আছে বলে নির্বাচনী হলফনামায় উল্লেখ করেননি।

অনুসন্ধানী সাংবাদিকদের গ্লোবাল নেটওয়ার্ক, অর্গানাইজড ক্রাইম অ্যান্ড করাপশন রিপোর্টিং প্রজেক্ট, বা অকর্প , শুক্রবার, ১৩ জানুয়ারী তার ওয়েবসাইটে পোস্ট করা একটি প্রতিবেদনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে রোজের বাড়ি কেনার কথা জানিয়েছে।

প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মোঃ আবদুস সোবহান মিয়া ২০১৪ সালে নিউইয়র্কে প্রথম অ্যাপার্টমেন্ট কেনা শুরু করেন। সে বছর তিনি নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসে একটি উচ্চ ভবনে একটি অ্যাপার্টমেন্ট কিনেছিলেন। পরবর্তী পাঁচ বছরে, তিনি নিউইয়র্কে মোট ৯ টি সম্পত্তির (ফ্ল্যাট বা বাড়ি) মালিক হন। এসব সম্পত্তির মূল্য ৪০ লাখ ডলারের বেশি (ডলারের বর্তমান বিনিময় হার অনুযায়ী প্রায় ৪২ কোটি টাকা)।

আবদুস সোবহান গোলাপ এক সময় নিউইয়র্কের বাসিন্দা ছিলেন। এখানে খেটে খাওয়া অন্য দুই ডজন প্রবাসীর মতো তিনিও বিভিন্ন চাকরি করেছেন। নিউইয়র্কে বাংলাদেশি কমিউনিটির কাছে তিনি ব্যাপক পরিচিত। প্রতি বছর তিনি রাষ্ট্রীয় সফরে নিউইয়র্কে আসেন। দলীয় সভায় বক্তব্য রাখেন তিনি।

মোঃ আবদুস সোবহান মিয়া ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে আওয়ামী লীগের মনোনয়নে মাদারীপুর-৩ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। গত ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনে তিনি কেন্দ্রীয় প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদকের পদ পান। দলের কমিটি। আগের কমিটিতে তিনি দলের কেন্দ্রীয় দফতর সম্পাদক ছিলেন।

আবদুস সোবহান মিয়ার বিষয়ে ওসিসিআরপির দেওয়া প্রতিবেদনের বিষয়ে তার বক্তব্য জানতে সংসদ সদস্যের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঢাকা মিডিয়াকে বলেন, আমি এখন আমার নির্বাচনী মাদারীপুরে আছি। শনিবার বিষয়টি ভালোভাবে জেনে কথা বলব।

ওসিসিআরপি রিপোর্ট অনুযায়ী, আবদুস সোবহান ২০১৪ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসে পাঁচটি কনডমিনিয়াম কিনেছিলেন। সেই সময়ে সম্পত্তির মূল্য ছিল প্রায় ২৪ মিলিয়ন ডলার। এছাড়াও, তিনি আশেপাশের বিল্ডিংগুলিতে ৬৮০ হাজার ডলার মূল্যের তিনটি অ্যাপার্টমেন্ট কিনেছেন। নিউইয়র্কে কেনা সম্পত্তির রেকর্ডে বলা হয়েছে যে সম্পত্তি নগদে কেনা হয়েছিল। এগুলোর মালিক তার স্ত্রী গুলশান আরাও।

ওসিসিআরপির একটি প্রতিবেদন অনুসারে, আবদুস সোবহান সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর ডিসেম্বর ২০১৯ সালে নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসে আরেকটি সম্পত্তি (বাড়ি) কিনেছিলেন। সম্পত্তির মূল্য ছিল প্রায় ১ .২ মিলিয়ন ডলার । তিনি ১৫ আগস্ট, ২০১৯ -এ তার মার্কিন নাগরিকত্ব ত্যাগ করেন। তার সাত মাস আগে, তিনি বাংলাদেশের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

গত সপ্তাহে একটি জাতীয় দৈনিকে ‘ওয়াসার তাকসিমের ১৪ টি হোমস ইন ইউএসএ!’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘এক-দুটি নয়, ১৪টি বাড়ি! দেশে নয়, সুদূর যুক্তরাষ্ট্রে। ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী তাকসিম এ খান যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি শহরে এসব বাড়ি কিনেছেন। সব বাড়ির দাম পড়বে হাজার কোটি টাকা। দেশ থেকে টাকা পাচার করে তিনি এসব বাড়ির মালিক হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাকসিম এ খান ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার মধ্যে কয়েকজন সাংবাদিককে ঢাকা ওয়াসার কার্যালয়ে ডেকে নেন।

তখন তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে তার পরিবারের একটি মাত্র বাড়ি রয়েছে। সেখানে ১৪টি বাড়ির অস্তিত্ব নিয়ে যে তথ্য প্রকাশিত হয়েছে তার কোনো সত্যতা নেই। তিনি বলেন, ‘একটা বাড়ি আছে, যেটা আমার স্ত্রী কিনেছেন। এর বাইরে কোনো বাড়ি নেই।

উল্লেখ্য, ওয়াসার এমডি তাকসীমের মার্কিন যুক্তরাষ্টে ১৪টি বাড়ি কেনার বিষয় নিয়ে সারা দেশে চলছে নানা আলোচনা সামালোচনা এবং সেই সাথে তার দুর্নীতিনি এবং অনিয়মের নানা বিষয়গুলো নিয়ে মানুষ নানা প্রশ্ন তুলছে এবং তার আয়ের উৎস আসলে কি সেটা জানাতে উৎসুক মানুষ।

Looks like you have blocked notifications!
Ads
[json_importer]
RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Most Popular

Recent Comments