Monday, January 30, 2023
বাড়িNationalতিনি চলে যাওয়াতে শুধু আওয়ামী লীগ নয়, এমনকি আমারও ক্ষতি হয়েছে :...

তিনি চলে যাওয়াতে শুধু আওয়ামী লীগ নয়, এমনকি আমারও ক্ষতি হয়েছে : প্রধানমন্ত্রী

Ads

সম্প্রতি না ফেরার দেশে চলে গিয়েছেন আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য সৈয়েদা সাজেদা চৌধুরী। তার এই চলে যাওয়াতে অপূরণীয় ক্ষতি হয়ে গেল এমনটা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তিনি বলেন সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর মৃত্যুকে শুধু আওয়ামী লীগের নয়, দেশের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, তিনি দলের পাশাপাশি জাতির জন্য গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি (সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী) চলে গেলে শুধু আওয়ামী লীগ নয়, আমাদের দেশ, জাতি এমনকি আমার (ক্ষতি) হয়েছে।

রোববার (৩০ অক্টোবর) সন্ধ্যায় জাতীয় সংসদের ২০তম অধিবেশনে প্রয়াত সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী ও সংসদ সদস্য শেখ এ্যানির আনীত শোক প্রস্তাবের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা এ কথা বলেন। রহমান, গ্রেট ব্রিটেনের রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ এবং অনেক প্রাক্তন সংসদ সদস্য ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। .

প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি শুধু সংসদ উপনেতাই নন, তিনি ছিলেন একজন মুক্তিযোদ্ধা, সমাজসেবক, সংস্কৃতিমনা ব্যক্তি, তাকে হারিয়ে আমাদের বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ একজন সত্যিকারের নিবেদিতপ্রাণ ব্যক্তিকে হারালো। আমি তার আত্মার শান্তি কামনা করছি এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, আমার সঙ্গে ছিলাম সবাই একে একে চলে যাচ্ছে। যাবার বয়স অনেক, হয়তো একদিন আমিও যাবো। তবে তিনি যা করেছেন (যার অবদান) তা আমাদের অবশ্যই মনে রাখতে হবে।

প্রয়াত সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীকে সবসময় পাশে থাকতেন বলে তিনি স্মরণ করেন। তাকে ফুপু বলে ডাকত এবং সত্যিই তার ফুপু ছিল এবং স্নেহের সাথে তার দেখাশোনা করত। বিভিন্ন সমাবেশে ভাষণ দিতে যাওয়ার পথে অসুস্থ হয়ে পড়লে প্রধানমন্ত্রী তার সেবার কথাও স্মরণ করেন।

তিনি বলেন, আমাদের আওয়ামী লীগের প্রতিটি নেতা-কর্মী, জাপার সাবেক চেয়ারম্যান, সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা জেনারেল এরশাদ, বেগম রওশন এরশাদ, আনোয়ার হোসেন মঞ্জু, জিয়াউর রহমানের হাতে নির্যাতিত জাপা নেতাদের আটকে রাখা হয়েছে। তাদের ন্যূনতম ডিভিশন না দিয়ে সাধারণ বন্দীদের সাথে। তিনি নির্যাতনের কথা স্মরণ করেন।

তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান যেভাবে সাজেদা চৌধুরী বা মতিয়া চৌধুরীকে গ্রেপ্তার করে বিভাজন না করে রেখে গেছেন, খালেদা জিয়াও জাপা নেতাদের সঙ্গে তা-ই করেছেন। অন্যদিকে, তার সরকার মানবিক কারণে এবং তার নির্বাহী ক্ষমতাবলে সাজা স্থগিত করে বেগম খালেদা জিয়াকে বাসায় চিকিৎসা নিতে দেয়। অর্থাৎ, এটি একটি মানুষের দৃষ্টিকোণ থেকে করা হয়, যেহেতু তিনি একজন বৃদ্ধ।

তিনি আরও বলেন, অন্যদিকে বিএনপি সরকার সাবেক বিমান বাহিনী প্রধান জামালউদ্দিনকে সাধারণ বন্দিদের সঙ্গে একটি ঘড়ি চুরির মামলা দিয়ে কোনো রকম বিভাজন ছাড়াই দুটি কম্বল দিয়ে ছেড়ে দেয়। এভাবে তারা মানুষের ওপর নির্যাতন চালায়।

শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগ সবাই নির্যাতিত। প্রথমে জিয়াউর রহমান, তারপর জেনারেল এরশাদ তারপর খালেদা জিয়া। আমরা বারবার গ্রেফতার ও নির্যাতনের শিকার। কিন্তু যেহেতু আওয়ামী লীগ একটি জনগণের সংগঠন এবং সাজেদা চৌধুরীর মতো বহু নিবেদিতপ্রাণ নেতাকর্মী এই সংগঠনের নেতৃত্বে থেকেছেন, তাই এই সংগঠন চরম দুঃসময়েও কখনো তার দিক হারায়নি, তার নীতি ও আদর্শ নিয়ে এগিয়েছে। তাই প্রয়াত এই নেতাদের আদর্শকে সামনে রেখে আমাদের যেসব নেতা আছেন তারা সংগঠনকে এগিয়ে নিয়ে যাবেন, এটাই আমার প্রত্যাশা।

স্পিকার শোক প্রস্তাব উত্থাপন করলে জাতীয় পরিষদ সর্বসম্মতিক্রমে তা গ্রহণ করে। এক মিনিট নীরবতা ও প্রার্থনার পর। ইমামতি করেন হাফেজ রুহুল আমিন মাদানী।
বর্তমান সংসদের কোনো সদস্য মারা গেলে সংসদে শোক প্রস্তাব নিয়ে আলোচনার রীতি অনুযায়ী সংসদের বৈঠক মুলতবি করা হয়। এরপর অধিবেশনের উদ্বোধন করেন স্পিকার ড. শির শারমিন চৌধুরী।

প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও সরকারি দলের আমির হোসেন আমু, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, বেগম মতিয়া চৌধুরী, মুহাম্মদ ফারুক খান, শাজাহান খান, আসম ফিরোজ, শ ম রেজাউল করিম, ওয়াসিকা আয়েশা খান, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সংসদ উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের। , জাপার আলোচনায় অংশ নেন। কাজী ফিরোজ রশীদ, ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা প্রমুখ।

সাজেদা চৌধুরীকে ছোটবেলা থেকে চিনতেন উল্লেখ করে সংসদ নেতা বলেন, পঁচাত্তর বছর পর জিয়াউর রহমান যখন সাজেদা চৌধুরীকে গ্রেপ্তার করেন, তখন তিনি অপারেশনের রোগী ছিলেন। তার পেটে ব্যান্ডেজ করা হয়েছিল। গোড়া এখনো ভালো করে শুকায়নি। জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় এসে আমাদের নেতাদের ওপর হামলা করে। গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। তাদের ভাগ করার পরিবর্তে সাধারণ বন্দীদের মধ্যে রেখে দেওয়া হয়েছিল।

জিয়াউর রহমানের শাসনামলে ইতিহাস থেকে বঙ্গবন্ধুর নাম মুছে ফেলার চেষ্টার কথা উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, জিয়াউর রহমান সেই সময় রাজনৈতিক দল নিবন্ধনের উদ্যোগ নিয়েছিলেন। তার শর্ত ছিল কারো নাম ব্যবহার করা যাবে না। কিন্তু সাজেদা চৌধুরী বঙ্গবন্ধুর নাম রাখতে অনড় ছিলেন। কিছু লোকের রোষানলে পড়তে হয়েছে তাকে। এ সময় তিনি সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দিয়ে সংগঠনকে ঐক্যবদ্ধ করার চেষ্টা করেন। আমি আসার পরও তিনি দীর্ঘদিন সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন।

শেখ হাসিনা বলেন, সাজেদা চৌধুরী লতা, পাতা ও ফুল ভালোবাসতেন। আমি তাকে দেশের বনায়নের জন্য বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দিই। সে তাই করেছে। সুন্দরবনকে সাজানো ও রক্ষায় তিনি বিরাট ভূমিকা পালন করেছেন। উপনেতা হিসেবে সাজেদা চৌধুরী নিয়মিত সংসদে আসতেন। তিনি সংসদের কাজে খুবই আগ্রহী ছিলেন।

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কমনওয়েলথ দেশগুলোর জন্য ব্রিটেনের প্রয়াত রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের বিশেষ আন্তরিকতা ছিল। কমনওয়েলথ সম্মেলনে যেতেন, কথা বলতেন।

তিনি বলেন, তিনি বলতেন আমাদের কমনওয়েলথ দেশগুলোতে নারী নেতৃত্ব খুবই কম। এটা ছিল তার একটা আক্ষেপ। পরিবেশ সম্পর্কেও সচেতন ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী স্মরণ করে বলেন, একদিন তিনি আমাকে বাকিংহাম প্যালেসের বারান্দায় নিয়ে গিয়েছিলেন। তিনি পুরোটা দেখিয়ে বলেন, কী আশ্চর্য সবাই এমন বোতল সমুদ্রে ফেলে পরিবেশ নষ্ট করছে। এটা কিছু করা প্রয়োজন. তিনি জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে উদ্বিগ্ন ছিলেন। তিনি কমনওয়েলথের মানুষের ভালো-মন্দের কথা চিন্তা করতেন।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ সবসময় তার খোঁজ খবর নেন। তিনি বলেন, “তিনি (প্রয়াত রানী) আমাকে, মালয়েশিয়া এবং সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী, আমরা তিনজনকে দেখেন।” তারপর বললেন, আপনারা তিনজনই দ্বিতীয় প্রজন্ম। তার স্মৃতি বিস্ময়কর ছিল। প্রধানমন্ত্রী সম্প্রতি মারা যাওয়া সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য শেখ এ্যানি রহমানের কথাও স্মরণ করিয়ে দেন।

উল্লেখ্য, আওয়ামীলীগের উপদেশমন্ডলীর সদস্য সাজেদা চৌধুরী না ফেরার দেশে চলে যাওয়ার পর রাজনৈতিক অঙ্গনে শোকের ছায়া নাম তার এই না ফেরার দেশে চলে যাওয়াতে অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে রাজনীতিতে। একজন প্রবীণ রাজনীতিবিদের এমন বিদায় নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও শোকাহত হন

Looks like you have blocked notifications!
Ads
[json_importer]
RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Most Popular

Recent Comments