Monday, January 30, 2023
বাড়িpoliticsশুধু আল্লাহকে খুশি করার জন্য এই কাজ করবো বলে কাবা শরিফে প্রতিজ্ঞা...

শুধু আল্লাহকে খুশি করার জন্য এই কাজ করবো বলে কাবা শরিফে প্রতিজ্ঞা করেছিলাম : শামীম ওসমান

Ads

নারায়ণগঞ্জের এমপি শামীম ওসমান বলেছেন মাদক নির্মূলে তিনি আপ্রাণ চেষ্টা করেছেন এবং সেই সাথে নারায়ণগঞ্জে যে যৌন পল্লী ছিল সেটা তিনি পুনর্বাসন করেছেন। তিনি বলেছেন এই কাজ করার জন্য নানা বাধার সমুক্ষিন হয়েছিলেন তিনি এবং তখন তিনি প্রধানমন্ত্রীর সাথে এই বিষয়ে আলাপ করলে তাকে প্রধানমন্ত্রী সেটি করতে বলেছিল

আমি যখন নারায়ণগঞ্জে ৯৬ সালে এমপি ছিলাম তখন নারায়ণগঞ্জে ফেনসিডিল ক্লাব নামে একটি মাদক ক্লাব ছিল। নারায়ণগঞ্জে প্রতিদিন ত্রিশ হাজার ফেনসিডিল বিক্রি হয়। ১১ বছরের কম বয়সী ৬,০০০ যৌনকর্মী নিষিদ্ধ পল্লীতে কাজ করেছে। তাদের বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়ায় সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীরা আমাকে গুলি করার জন্য পিস্তল তাক করেছিল বলে জানিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান।

শনিবার (২৯ অক্টোবর) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ লাইন্সে কমিউনিটি পুলিশিং দিবস উপলক্ষে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শামীম ওসমান বলেন, এখন আমার বয়স হয়েছে, আগের মতো আর পারি না। পারলে নারায়ণগঞ্জ থেকে মাদক উচ্ছেদ করতাম। কারা জড়িত আমরা জানি। তারা আমাদের আশ্রয়ে মাদকের বেঁচে। আমি পুলিশ ভাইদের কাছে অনুরোধ করছি, দয়া করে আমাদের নারায়ণগঞ্জকে বাঁচান। আমরা আপনাদের সাথে আছি, প্রয়োজনে লাঠিসোঁটা নিয়ে নামব।

তিনি বলেন, আমি হজে গিয়ে নারায়ণগঞ্জের কলঙ্কিত যৌনপল্লী ও মাদক সমস্যা সমাধানে পবিত্র কাবা স্পর্শ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম। আপনি জেনে আশ্চর্য ও দুঃখিত হবেন যে সমগ্র বাংলাদেশের অপরাধ (সন্ত্রাসী কর্মকান্ড) নিয়ন্ত্রিত হত সেই নিষিদ্ধ পল্লী থেকে। ১১ বছরের কম বয়সী ৬,০০০ -এর বেশি মেয়ে ওই পল্লীতে কাজ করত। ওই এলাকায় প্রতিদিন ৩০ হাজার বোতল ফেনসিডিল বিক্রি হত । আমি আমার অন্তরের অন্তস্থল থেকে ধন্যবাদ জানাতে চাই যারা সেই সময় এখানে পুলিশের দায়িত্বে ছিলেন। আমি তাদের এবং তাদের পরিবারের জন্য সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করি, তারা যেন সুস্থ থাকে। আমি তাদের ছাড়া ওদের থামাতে পারতাম না. আমি আমার মাদকের আস্তানা পরিষ্কার করেছি, কিন্তু যৌন পল্লী নয়। যৌন পল্লী পুনর্বাসন করা হয়েছে।

শামীম ওসমান বলেন, আমি কাবা শরীফে মানত করেছিলাম যে, একমাত্র আল্লাহকে খুশি করার জন্যই এই কাজটি করব। আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বলেছি, দেশে ফিরে এ কাজটি করতে চাই। আপনি (প্রধানমন্ত্রী) বলেছেন এটা কর, আমি বললাম বাঁধা আসবে আপা। আমাকে সাহস দিয়ে বললেন, ভালো কাজ বাধাগ্রস্ত হবে, তুমি এগিয়ে যাও শামীম। বড় বাধা এসেছিল , নাম শুনলেই ভয় পাবেন। দেশে-বিদেশে এমন কোনো খাত নেই যা এর সঙ্গে জড়িত ছিল না। যারা টেলিভিশনে বসে বড় বড় বক্তৃতা দিতেন তারা সবাই জড়িত। আমি মনে করি সেই চাকরিটি আমার জীবনের অন্যতম সেরা কাজ ছিল এবং সেই কারণেই আমি বোমা হামলা থেকে বেঁচে গিয়েছিলাম।

জেলা পুলিশের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ওই সময়ে যারা এ জেলার দায়িত্বে ছিলেন, তারা নিয়মিত আমার বাসায় আসতেন এবং এই নারায়ণগঞ্জকে কীভাবে ভালো রাখা যায় সে বিষয়ে আমরা সমন্বয় করতাম। তাদের সঙ্গে মাঠে কাজ করতাম। একবার আমি শীতের রাতে কম্বলে জড়িয়ে রাস্তায় নেমেছিলাম, মাদক ব্যবসায়ীরা আমাকে গুলি করার জন্য পিস্তল ধরেছিল । আমাকে চিনতে পারছে না আমি যখন চাদরটা সরিয়ে ফেললাম, দেখলাম ওটা শামীম ওসমান। মাত্র তিন-চার দিনে ওষুধ বন্ধ হয়ে যায়, তৎকালীন আইজি আমাকে জরুরি গাড়ি পাঠান। সে বলল তোমাকে মেরে ফেলবে। আমি বললাম কেন? তিনি বলেন, সারা বাংলাদেশের মাদক ব্যবসায়ীরা আপনাকে আঘাত করার জন্য একজোট হয়েছে।

তিনি প্রশাসনকে মাদক অপরাধীদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, গাজী ভাইসহ বেশ কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধা আমার সামনে বসে আছেন। ভয়ে তারা দেশ স্বাধীন করেনি। আমার মেয়ে রাত ১০টার পর বাইরে থাকলে আমি কেন তার নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তা করব। আমরা দরজা খুলে ঘুমাতে চাই। এদেশের মানুষ স্বাধীন, তারা ভয় পেতে চায় না। তারা নিরাপদ জীবন চায়। আমি আপনার কাছে অনুরোধ করছি, মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত একটি নিরাপদ শহর। কোনো অপরাধী আওয়ামী লীগার বললে তার শাস্তি দ্বিগুণ হবে। কারণ তিনি শেখ হাসিনার দলের। শেখ হাসিনা অপরাধীদের সঙ্গে আপস করেন না। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের কর্মী হয়ে কেউ যদি এই অপকর্মে লিপ্ত হয়, তাহলে আমি মনে করি তার এই দলে থাকার কোনো অধিকার নেই।

উল্লেখ্য, নাড়ায়গঞ্জে একসময়ে নিষিদ্ধ পলিতে মাদকের আস্তানা হয়ে উঠেছিল এবং ঐসময়টাতে দেখা গিয়েছিল দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মাদকের জন্য সেখানে মানুষ জমায়েত হত তবে নারায়ণগঞ্জের এমপি শামীম ওসমান সেটি পরবর্তীতে বন্ধ করে দেন

 

Looks like you have blocked notifications!
Ads
[json_importer]
RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Most Popular

Recent Comments