Saturday, February 4, 2023
বাড়িInternationalএ ঘটনায় আমার জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেলে রাজনীতি ছেড়ে দেব :...

এ ঘটনায় আমার জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেলে রাজনীতি ছেড়ে দেব : প্রধানমন্ত্রী

Ads

পাকিস্তানে সম্প্রতি দেখা গেছে দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের লংমার্চ এ হামলার ঘটনা ঘটেছে এবং হামলায় গু’লি’বি’দ্ব হয়েছেন ইমরান খান। পরবর্তীতে অবশ্য হামলাকারীকে ধরা হয়েছিল তবে পাকিস্তানে এখন রাজনৈতিক অঙ্গনে এই ঘটনা নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়েছে।

পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ ইমরানের হ’ত্যা’চে’ষ্টা’র সঙ্গে জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেছেন। হামলার সঙ্গে জড়িত থাকার প্রমাণ পেলে তিনি রাজনীতি ছেড়ে দেবেন বলে জানান। রোববার কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

জানা গেছে, ইমরান খানের ওপর হ’ত্যা’চে’ষ্টা’র পর দেশে ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে। হামলায় আহত ইমরান খান তাকে বলেছেন, এই হ’ত্যা’চে’ষ্টা’র সঙ্গে তিনজন জড়িত ছিল। পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ সেই তিনজনের একজন।

খবরে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ বিরোধীদলীয় নেতা ইমরান খানের হ’ত্যা’চে’ষ্টা’র সঙ্গে জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেছেন। অন্যদিকে, ইমরান খানের সমর্থকরা হত্যাচেষ্টার তদন্তের দাবিতে পাকিস্তানজুড়ে বিক্ষোভ অব্যাহত রেখেছে।

গত বৃহস্পতিবার সরকারবিরোধী সমাবেশে ইমরান খান পায়ে গু’লি’বি’দ্ধ’ হ’ন। বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটার থেকে রাজনীতিতে পরিণত হওয়া ইমরান খান তার ওপর হামলার জন্য পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরীফ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ এবং পাকিস্তান সেনাবাহিনীর একজন শীর্ষ জেনারেলকে দায়ী করেছেন।

শাহবাজ শরীফ শনিবার বলেন, এ ঘটনায় আমার সম্পৃক্ততার প্রমাণ পাওয়া গেলে আমার (প্রধানমন্ত্রী) পদে থাকার কোনো অধিকার নেই।

শাহবাজ পাকিস্তানের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় শহর লাহোরে সাংবাদিকদের বলেন, “যদি এটি (ইমরানের ওপর হামলার প্রমাণ) পাওয়া যায়, তাহলে আমি চিরতরে রাজনীতি ছেড়ে দেব।”

শাহবাজ বলেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান ‘মিথ্যা ও সস্তা ষড়যন্ত্র’ করে দেশের ক্ষতি করছেন। তিনি সুপ্রিম কোর্টকে “গুরুতর” অভিযোগের তদন্তের জন্য একটি পূর্ণ-আদালত কমিশন গঠনের আহ্বান জানান।

শাহবাজ শরীফ বলেন, আমি পাকিস্তানের প্রধান বিচারপতি উমর আতা বন্দিয়ালকে একটি পূর্ণাঙ্গ আদালত কমিশন গঠনের অনুরোধ করছি। কারণ, পূর্ণাঙ্গ তদন্তের পরই সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত।’

উল্লেখ্য, পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর দিকে লংমার্চে হামলার অভিযোগ করেছেন ইমরান খান। অবশ্য এর আগে প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ এবং পাকিস্তান সেনাবাহিনীর অন্যতম শীর্ষ কর্মকর্তা মেজর জেনারেল ফয়সাল হামলায় জড়িত ছিলেন।এমনকি গত শুক্রবারও ইমরানের অভিযোগকে ‘দায়িত্বজ্ঞানহীন ও অগ্রহণযোগ্য’ বলে অভিহিত করেছে সামরিক বাহিনী।

Looks like you have blocked notifications!
Ads
[json_importer]
RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Most Popular

Recent Comments