Monday, January 30, 2023
বাড়িNationalসফরের ঠিক একদিন আগেই এএনআই'র মুখোমুখি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, ভারতকে নিয়ে বললেন...

সফরের ঠিক একদিন আগেই এএনআই’র মুখোমুখি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, ভারতকে নিয়ে বললেন অনেক কথা

Ads

আগামী কাল বাংলাদেশের জন্য আরেকটি গুরুত্বপূর্ন দিন। কারন আগামীকাল ৫ সেপ্টেম্বর ভারত সফরে যাচ্ছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর এই সফর নিয়ে এখন দুই দেশের মধ্যেই বেশ আলোচনার শুরু হয়েছে। চলছে নানা ধরনের আয়োজন। এ দিকে ভারত সফরের একদিন আগে এএনআই’কে একটি সাক্ষাতকার দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেখানে তিনি জানিয়েছেন অনেক কিছু।

প্রতিবেশী ভারতকে ‘পরীক্ষিত বন্ধু’ বলে উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার (৪ সেপ্টেম্বর) এশিয়ান নিউজ ইন্টারন্যাশনালকে (এএনআই) দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেন।

“আমরা আমাদের ১৯৭১ সালের যুদ্ধের সময় তাদের অবদানের কথা সবসময় মনে রাখি। এমনকি ১৯৭৫ সালে, যখন আমার পরিবারের সকল সদস্যকে হারালাম, তখন তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী (ইন্দিরা গান্ধি) আমাদের আশ্রয় দিয়েছিলেন ভারতে,” বলেন প্রধানমন্ত্রী।

সাক্ষাৎকারে তিনি আরও বলেন, “এছাড়াও, আমরা প্রতিবেশী দেশ, ঘনিষ্ঠ প্রতিবেশী; এবং আমি সবসময় আমাদের প্রতিবেশী দেশগুলির সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ককে গুরুত্ব ও অগ্রাধিকার দিই।”

রাশিয়া-ইউক্রেন সংঘর্ষের পর পূর্ব ইউরোপে আটকে পড়া বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের উদ্ধারে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, “আমি সত্যিই প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাতে চাই; রাশিয়া এবং ইউক্রেনের মধ্যে এই যুদ্ধের সময়, আমাদের অনেক ছাত্র সেখানে আটকা পড়েছিল, তারা আশ্রয়ের জন্য পোল্যান্ডে গিয়েছিল। কিন্তু তিনি যখন ভারতীয় ছাত্রদের ফিরিয়ে আনলেন, তখন আমাদের ছাত্ররা তাদের সাথে বাড়িতে আসতে পেরেছিল। তিনি সত্যিই বন্ধুত্বপূর্ণ মনোভাব দেখিয়েছেন। আমি এই উদ্যোগের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই।”

এছাড়াও, প্রধানমন্ত্রী ‘ভ্যা’ক’সি’ন মৈত্রী’ কর্মসূচির অধীনে প্রতিবেশী দেশগুলিতে কোভিড-১৯ টিকা দেওয়ার জন্য ভারত সরকারের প্রশংসা করেন।

আগামীকাল সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) ভারত সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একদিন আগে এএনআইকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সহযোগিতার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, মতবিরোধ থাকতে পারে, তবে আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করতে হবে।

“আমি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং মাননীয় রাষ্ট্রপতিকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। তারা দুজনেই জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী এবং সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপনের সময় বাংলাদেশ সফর করেছিলেন। সেই সময় ক’রো*না মহা’মা’রী চলছিল, তবুও তারা এসেছিলেন এবং আমাদের জনগণকে সম্মানিত করেছি। বাংলাদেশের সাথে ভারতের বন্ধুত্ব চিরকালের। বাংলাদেশ ভারত এটিকে প্রথম দিকে স্বীকৃতি দিয়েছে। তাই এটি আমাদের অগ্রাধিকার হবে,” যোগ করেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই সফর নিয়ে অনেক আশা দেখছেন দুই দেশের মানুষই। বিশেষ করে দীর্ঘ কয়েক দশক ধরে ঝুলে থাকা তিস্তা চুক্তি নিয়ে কোন সুরাহা হবে কি না তা দেখার জন্যও অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে দুই দেশের সকলেই।

Looks like you have blocked notifications!
Ads
[json_importer]
RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Most Popular

Recent Comments