Tuesday, January 31, 2023
বাড়িNationalমমতা আমার বোনের মতো, যখন চাইব দেখা করব : প্রধানমন্ত্রী

মমতা আমার বোনের মতো, যখন চাইব দেখা করব : প্রধানমন্ত্রী

Ads

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রনে ভারতে গিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল দুপুরে তিনি সেখানে পৌছেছেন।তবে এবার ভারত সফরে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পাশে পাচ্ছেন না তিনি তবে তাকে পাশে না পেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘মমতা আমার বোনের মতো। ভেবেছিলাম ভারত সফরে নয়াদিল্লিতে তার সঙ্গেও দেখা হবে। কোনো কারণে এবার সেটা হচ্ছে না, তবে তার সঙ্গে তো আমি যেকোনো সময়েই দেখা করতে পারি।’

ভারতে রাষ্ট্রীয় সফরে এবার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা না হওয়া প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানান, মমতা আমার কাছে বোনের মতো। তার সঙ্গে যখন খুশি আমি দেখা করতে পারি।

বাংলাদেশ হাইকমিশন আয়োজিত অনুষ্ঠানের সময় পার্শ্ব বৈঠকে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এমনটি জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘মমতা আমার বোনের মতো। ভেবেছিলাম ভারত সফরে নয়াদিল্লিতে তার সঙ্গেও দেখা হবে। কোনো কারণে এবার সেটা হচ্ছে না, তবে তার সঙ্গে তো আমি যেকোনো সময়েই দেখা করতে পারি।’

নয়াদিল্লিতে দেখা করার প্রত্যাশা জানিয়ে এর আগে মমতাকে চি‌ঠিও দিয়েছিলেন শেখ হাসিনা, এমনটি জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম দ্য হিন্দুস্তান টাইমস ও আনন্দবাজার।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীকে ওই চিঠিতে তিনি পদ্মা সেতু দেখার আমন্ত্রণও জানিয়েছেন। মমতার সঙ্গে আলোচনায় বসাটা বাংলাদেশের আসন্ন ভোটে আওয়ামী লীগের পক্ষে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে বলে মনে করা হচ্ছে।

‘মমতা বোনের মতো, যখন চাইব দেখা করব’
বাংলাদেশ হাইকমিশন আয়োজিত অনুষ্ঠানের সময় পার্শ্ববৈঠকে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি: খবর দুনিয়া

ভারত এবং বাংলাদেশের মধ্যে সুসম্পর্ক জোরদারে সোমবার থেকে শুরু হয় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর চার দিনের ভারত সফর। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চার দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় রাজধানী নয়াদিল্লি পৌঁছান।

সন্ধ্যায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সঙ্গে দেখা করেন শেখ হাসিনা। রাতে চাণক্যপুরীর বাংলাদেশ ভবনে কূটনীতিকদের সঙ্গে কথা বলেন হাসিনা।

নৈশভোজে এ দিন বেশ হাসিখুশি ছিলেন শেখ হাসিনা। জানালেন, ইলিশ রপ্তানির ছাড়পত্র দিয়েই তিনি দিল্লি সফরে এসেছ‌েন। দুর্গাপূজার সময়ে এ দেশের মানুষকে এটা তার উপহার। নানা সূচকে বাংলাদেশের অর্থনীতি এগিয়ে চলেছে। করোনা মহামারির সময়ে যে কয়েকটি হাতে গোনা দেশের রপ্তানি আয় চলমান ছিল, বাংলাদেশ তার অন্যতম। কিন্তু বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের বোঝা বাংলাদেশের মাথায় চেপে বসছে।

শেখ হাসিনার এই সফরের দ্বিতীয় দিন মঙ্গলবার বাণিজ্যসংক্রান্ত চুক্তি ছাড়াও কয়েকটি সমঝোতা স্মারক সই হওয়ার কথা রয়েছে, তবে চুক্তি ও সমঝোতাসংক্রান্ত নির্ধারিত এজেন্ডা যাই থাক, এর বাইরেও অনেক বিষয় আলোচনা হবে।

কূটনৈতিক একটি সূত্র জানায়, আজ বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির যে বৈঠক হওয়ার কথা, তা খুবই তাৎপর্যপূর্ণ।

উল্লেখ্য,গতকাল সোমবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রনে ভারত সফরে গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, এর আগে ২০১৯ সালের অক্টোবরে দিল্লি সফরের পর গত সেপ্টেম্বরে জাতিসংঘের অধিবেশনে গিয়ে সেখানে একান্ত বৈঠক করেছিলেন শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি।

Looks like you have blocked notifications!
Ads
[json_importer]
RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Most Popular

Recent Comments