Monday, January 30, 2023
বাড়িNationalপুলিশ, র‌্যাব, সেনাবাহিনীও ব্যবস্থা নিচ্ছে, তাদের এমন আচরণ সহ্য করা হবে না...

পুলিশ, র‌্যাব, সেনাবাহিনীও ব্যবস্থা নিচ্ছে, তাদের এমন আচরণ সহ্য করা হবে না : স্বরাষ্টমন্ত্রী

Ads

সম্প্রতি বাংলাদেশে নিষিদ্ধ সংগঠন নিয়ে বেশ আলোচনা চলছে এবং নতুন করে কিছু সংগঠন মাথা তুলে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে বলে জানিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। জানা গেছে তারা বান্দরবানে তাদের কর্মকান্ড করছে। সেকারনে নিরাপত্তার স্বার্থে গত ১৮ অক্টোবর থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বান্দরবানের রুমা ও রোয়াংছড়ি উপজেলায় পর্যটকদের ভ্রমণে নিরুৎসাহিত করেছে স্থানীয় প্রশাসন।

সোমবার (১৭ অক্টোবর) সন্ধ্যায় স্থানীয় প্রশাসন এ তথ্য জানায়। জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরিজি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন, দেশের পার্বত্য অঞ্চলে মাথা তুলে দাঁড়ানো সংগঠন ‘কুকি-চিন ন্যাশনাল ফ্রন্ট’কে বরদাস্ত করা হবে না। তিনি বলেন, তাদের ধ্বংসাত্মক আচরণ প্রতিহত করা হবে। রোববার ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরে এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

‘কুকি-চিন ন্যাশনাল ফ্রন্ট’ যার সংক্ষিপ্ত নাম কেএনএফ। বলা হয়, দেশের পাহাড়ি অঞ্চলে হঠাৎ মাথা তুলে দাঁড়ানো সংগঠনটি এখন তুমুলভাবে আত্মপ্রকাশের চেষ্টা করছে। তারা স্বাধীন বাংলাদেশের ভূখণ্ডকে আলাদা করার নীলনকশা বাস্তবায়নের চেষ্টা করছে। শুরুতে এটি একটি শান্তিপূর্ণ সংগঠন হিসেবে কাজ করলেও এখন এটি বিষাক্ত সাপের মতো আড়াল হতে শুরু করেছে, একটি বিচ্ছিন্নতাবাদী আঞ্চলিক সংগঠন।

গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে রোববার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে প্রশ্ন করেন সাংবাদিকরা। জবাবে তিনি বলেন, তাদের এমন আচরণ বরদাস্ত করা হবে না। তাদের দমনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘কেএনএফসহ আরও কিছু বাহিনী আছে, আপনারা জানেন। তারা সব সময় আমাদের সীমান্ত এলাকায় অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির চেষ্টা করছে। আমাদের সেনাবাহিনী থেকে শুরু করে আমাদের পুলিশ পার্বত্য চট্টগ্রামের তিন জেলায় রয়েছে।

তিনি বলেন, প্রয়োজনে আমাদের পুলিশ, বিজিবি, র‌্যাব, সেনাবাহিনীও সেখানে ব্যবস্থা নিচ্ছে। আমরা আমাদের এলাকায় বিচ্ছিন্নতাবাদীদের থাকতে দিচ্ছি না, তাদের সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, “যখনই আমরা বুঝতে পারি যে কোনো বিচ্ছিন্নতাবাদী বা কোনো জঙ্গি সংগঠন বাংলাদেশের কোথাও অবস্থান করছে, আমরা তাদের সরিয়ে দিই।”

বাংলাদেশি জঙ্গিরা কেএনএফের সাথে সম্পর্কিত কি না জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, “আমরা জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার বিষয়গুলো দেখছি।” সংযোগ পেলে আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি। আমরা ধারণা করছি জঙ্গিরা সেখানে গিয়েছিল। তারা কেএনএফ ক্যাম্পের পাশে অবস্থান করছিলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “আমরা এই ঘটনাগুলো দেখছি, কিছু লোককে ধরেছি এবং কয়েকজনকে চিহ্নিত করেছি। আমরা তাদের কাছ থেকে বিষয়গুলো আপনাদের জানাব।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশে জঙ্গিরা নতুন করে তাদের আস্তানা তৈরী করেছে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। এদিকে সারা দেশে এই বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক আলোচনা চলছে এবং সেই সাথে আইন রক্ষাকারী বাহিনী বিষয়টি নিয়ে তৎপর রয়েছে বলে জানা গেছে

Looks like you have blocked notifications!
Ads
[json_importer]
RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Most Popular

Recent Comments