Tuesday, January 31, 2023
বাড়িopinionর‍্যাবের নিষেধাজ্ঞা কাটাতে মার্কিন লবিস্ট ফার্মকে ৮ মিলিয়ন ডলার দিয়েছে শেখ হাসিনা...

র‍্যাবের নিষেধাজ্ঞা কাটাতে মার্কিন লবিস্ট ফার্মকে ৮ মিলিয়ন ডলার দিয়েছে শেখ হাসিনা : লিমন

Ads

সপরিবারে ঢাকায় এসেছেন কেনেডি, রাজনৈতিক অঙ্গনে কেনেডির এই আগমন নিয়ে নানা প্রশ্নের দানা বেঁধেছে তবে জানা গেছে আট দিনের সফরে তারা দেশের বেশ কয়েকটি স্থান পরিদর্শন করবেন।তবে অনেকের রয়েছে ভিন্নমত এই প্রসঙ্গে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন লেখক শহিদুল ইসলাম লিমন। নিচে তার লেখাটি তুলেধরা হল –

শেখ হাসিনার ফ্যাসিবাদী শাসনামলে গণতন্ত্র যখন বিলীন, তখন আট দিনের সফরে বাংলাদেশে আসছেন সাবেক মার্কিন সিনেটর এডওয়ার্ড এম কেনেডির ছেলে ও যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট জন এফ কেনেডির ভাতিজা এডওয়ার্ড এম কেনেডি জুনিয়র।
তার সফরের বিষয়ে বলা হচ্ছে, বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে এডওয়ার্ড এম কেনেডি ২৯ অক্টোবর থেকে ৫ নভেম্বর বাংলাদেশে অবস্থান করবেন।তবে তাঁর এই সফরের বিষয়ে পেছনের ভিন্ন আরও কিছু তথ্য পাওয়া গেছে।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, গুরুতর মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে বাংলাদেশের পুলিশ র‌্যাব-এর সাবেক ৬ জন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মার্কিন ট্রেজারি বিভাগের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে প্রভাবশালী কেনেডি পরিবারের সহযোগিতা প্রার্থনা করতে বাংলাদেশের একটি বিশেষ সম্প্রাদায়ের সাম্প্রদায়িক নেতাদের তদবিরে তাঁকে বাংলাদেশে আনা হচ্ছে।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, নিউ ইয়র্কে বসবাসকারী হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের একজন নেতা প্রথমে এডওয়ার্ড এম কেনেডি জুনিয়রের ভাই প্যাট্রিক কেনেডির সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে প্যাট্রিক কেনেডির পরামর্শে এডওয়ার্ড এম কেনেডি জুনিয়র বাংলাদেশ সফরে আসতে রাজি হন।
এডওয়ার্ড এম কেনেডি জুনিয়রকে বাংলাদেশে আনতে মধ্যস্থতা করেন হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নেতা সুকমল বড়ুয়া এবং নিউ ইয়র্ক প্রবাসী সীতাংশু গুহ।

হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের এই দুই নেতার মধ্যস্থতায় বাংলাদেশে সরকারের বিশেষ ফান্ড থেকে সব ধরনের খরচ করা হচ্ছে বলেও নাম না প্রকাশ করার সূত্রে জানিয়েছে একটি সূত্র।

সূত্র জানিয়েছে, আওয়ামী লীগের দুর্নীতিবাজ নেতাদের যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণ সহজ করা ও তাদের অবৈধ সম্পদ রক্ষার জন্য লবিস্ট হিসেবে কেনেডি পরিবারের প্রভাবশালী এই সদস্যকে ম্যানেজ করার চেষ্টায় রয়েছে শেখ হাসিনার সরকার।
এছাড়া, পুলিশের বিশেষ শাখা র‌্যাব-এর সাবেক ছয়জন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নজিরবিহীন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারেও এডওয়ার্ড এম কেনেডি জুনিয়রের সহযোগিতা চাইতে পারে আওয়ামী নেতৃত্বাধীন অবৈধ সরকার।

এছাড়া, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সংখ্যালঘুদের জন্য ৬০টি আসনের কোটার দাবিতে দেনদরবার করতেও উঠেপড়ে লেখেছে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নেতারা। সংখ্যালঘুদের কথিত নির্যাতনের অজুহাত তুলে এই কাজে তারা এডওয়ার্ড এম কেনেডি জুনিয়রের কাছেও ধর্না দিতে পারে বলে জানা গেছে।
একাধিক সূত্রে জানা গেছে, মার্কিন সরকারকে র‍্যাবের উপর সাম্প্রতিক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের জন্য তদবির করা এবং ক্ষমতাসীন দলের প্রধানদের দ্বারা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণ সহজ করার জন্য আমেরিকার লবিস্ট ফার্মকে কাজ করতে ৮ মিলিয়ন ডলার দিয়েছে শেখ হাসিনার সরকার। যদিও এ বিষয়ে প্রকাশ্য কোনো কথা বলা থেকে বিরত রয়েছে ভোট চুরি করে ক্ষমতায় থাকা শেখ হাসিনা।

প্রসঙ্গত, ঢাকায় মার্কিন দূতাবাসের এক বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা গেছে, বাংলাদেশ সফরে এডওয়ার্ড এম কেনেডি জুনিয়রের সফরসঙ্গীরা হলেন তাঁর স্ত্রী ক্যাথরিন কিকি কেনেডি, মেয়ে কাইলি কেনেডি, ছেলে টেডি কেনেডি, ভাতিজি গ্রেস কেনেডি অ্যালেন ও ভাতিজা ম্যাক্স অ্যালেন।
বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, এডওয়ার্ড এম কেনেডি জুনিয়র বাংলাদেশ সফরের সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বক্তৃতা দেবেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে তাঁর বাবা যে বটগাছটি রোপণ করেছিলেন, সেটি দেখবেন। এডওয়ার্ড এম কেনেডি সেন্টার ফর পাবলিক সার্ভিস অ্যান্ড দ্য আর্টসে প্রতিবন্ধীদের অধিকারের বিষয়ে বক্তৃতাও করবেন তিনি।
কেনেডি পরিবারের সদস্যরা বেশ কয়েকটি সাংস্কৃতিক কেন্দ্র পরিদর্শন করবেন। শেখ হাসিনা ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন এবং সরকারের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। এ ছাড়া নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি, মার্কিন সরকারের অর্থায়নে পরিচালিত শিক্ষা বিনিময় কার্যক্রমে অংশগ্রহণকারী সাবেক শিক্ষার্থীদের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন তাঁরা।

Looks like you have blocked notifications!
Ads
[json_importer]
RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Most Popular

Recent Comments