Tuesday, January 31, 2023
বাড়িNationalবেরিয়ে এল সেই বেলুন বিস্ফোরণের আসল কারন, বেলুনের মধ্যে কৌশলে দেওয়া হয়েছিল...

বেরিয়ে এল সেই বেলুন বিস্ফোরণের আসল কারন, বেলুনের মধ্যে কৌশলে দেওয়া হয়েছিল দাহ্য পদার্থ

Ads

সম্প্রতি গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে গিয়ে একটি ভয়াবহ দুর্ঘটনার মুখোমুখি হয়েছেন এপার বাংলার এবং ওপর বাংলার জনপ্রিয় কমেডি তারকা আবু হেনা রনি। জানা গেছে ওই অনুষ্ঠানে বেলুন ওড়ানোর চেষ্টাকালে সেখানে বিস্ফোরণ হয় এবং তৎক্ষনাত অগ্নিদগ্ধ হন রনি সহ আরো পাচ্ জন

এজাহারে বলা হয়েছে, আসামিরা উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে বেলুনের মধ্যে কৌশলে ক্ষতিকারক দাহ্য পদার্থ বা গ্যাস ব্যবহার করে বেলুন সরবরাহ করায় এগুলো বিস্ফোরিত হয়।
গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে গ্যাস বেলুন বিস্ফোরণের ঘটনায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করেছে পুলিশ। এতে আসামি করা হয়েছে বেলুন সরবরাহের দায়িত্বে থাকা তিনজনকে।

সদর থানার উপপরিদর্শক মোসাব্বির হোসেন শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে মামলাটি করেন।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপকমিশনার (ট্রাফিক ও মিডিয়া) মো. আলমগীর হোসেন সোমবার নিউজবাংলাকে মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আসামিরা হলেন মো. বাবুল, মনিক ও কিবরিয়া। তবে এজাহারে তাদের বিস্তারিত পরিচয় উল্লেখ করা হয়নি।

এজাহারে বলা হয়েছে, শুক্রবার বিকেলে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের চতুর্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ আমন্ত্রিত অতিথিরা পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে মূল অনুষ্ঠান মঞ্চে চলে যান। কিন্তু বেলুনগুলো আকাশের দিকে না ওড়ে পুলিশ লাইন্সের ভিতরে অবস্থিত ইন-সার্ভিস ট্রেনিং সেন্টারের সামনে গিয়ে পড়ে। এ সময় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে পারফর্ম করতে আসা মিরাক্কেল খ্যাত কৌতুক অভিনেতা আবু হেনা রনি পুনরায় বেলুনগুলো ওড়ানোর জন্য গেলে হঠাৎ বিস্ফোরিত হয়। এতে রনিসহ পুলিশের চার কনস্টেবল দগ্ধ হন।

এজাহারে আরও বলা হয়েছে, আসামিরা উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে বেলুনের মধ্যে কৌশলে ক্ষতিকারক দাহ্য পদার্থ বা গ্যাস ব্যবহার করে বেলুন সরবরাহ করায় এগুলো বিস্ফোরিত হয়।

এমনকি বেলুনগুলো পার্শ্ববর্তী উদ্বোধনী অনুষ্ঠান মঞ্চে বিস্ফোরিত হলে বড় ধরণের ক্ষতির আশংকা ছিল বলেও এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।

আলমগীর হোসেন বলেন, ‘শনিবার রাতে বিশেষ ক্ষমতা আইনে তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। তদন্তের কাজ চলছে। তদন্তে আসামিদের বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলা কিংবা নাশকতার প্রমাণ পাওয়া গেলে গ্রেপ্তারসহ আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

এদিকে বিস্ফোরণের ঘটনায় পুলিশের গঠিত তদন্ত কমিটির সদস্য অতিরিক্ত উপকমিশনার রেজওয়ান আহমেদ নিউজবাংলাকে বলেন, ‘আমাদের তদন্ত কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। শিগগিরই প্রতিবেদন জমা দেয়া হবে।’

উল্লেখ্য, অগ্নিদগ্ধ হয়ে বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎিসা নিচ্ছেন আবুহেনা রনি এবং আরো পাচ্ পুলিশ সদস্য তবে রনির অবস্থা বিশেষ ভাল নয় ওই অগ্নিকান্ডে তারা শ্বাসনালী পুড়ে যায় এবং মারাত্মক কোটির মুখে পরে যান তিনি । এদিকে তাকে দেখতে হাপাতালে গিয়েছিলেন পুলিশের মহাপরিদর্শক আইজিপি বেনজির আহমেদ

Looks like you have blocked notifications!
Ads
[json_importer]
RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Most Popular

Recent Comments