Sunday, February 5, 2023
বাড়িConutrywideনা ফেরার দেশে পাঠিয়ে ক্ষান্ত হয়নি ছাত্রলীগ, এবার হামলা করলো আবরারের স্বরণ...

না ফেরার দেশে পাঠিয়ে ক্ষান্ত হয়নি ছাত্রলীগ, এবার হামলা করলো আবরারের স্বরণ সভায়

Ads

বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদকে না ফেরার দেশে পাঠিয়েছিল ছাত্রলীগ এবং সেই ঘটনা সারা দেশে ব্যাপক সমালোচনা ছড়িয়েছিল তবে এবার আবরারের স্বরণ সভায় আবারো হামলা চালালো ছাত্রলীগ এবং এই ঘটনা অনেকে আহত হয়েছে, সেই সাথে এক রিক্সাচালকের মাথায় গুরুতর আঘাত লেগেছে বলেও জানা গিয়াছে

ছাত্রলীগের হামলায় নিহত বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে আবরার ফাহাদ স্মৃতি সংসদ আয়োজিত সভায় হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ।

শুক্রবার (৭ অক্টোবর) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে এ হামলার ঘটনা ঘটে। আহত হয়েছেন অন্তত ১০ জন। আবরার ফাহাদ স্মৃতি সংসদের আহ্বায়ক আখতার হোসেন জানান, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা এ হামলা চালিয়েছে।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে আসিফ মাহমুদ বলেন, পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী বিকেল ৩টা থেকে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে আমাদের স্মরণ কর্মসূচি শুরু হয়। এ সময় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের একান্ত বিষয়ক সম্পাদক আল আমিন রহমান ও এক ছাত্র। সুজন শেখ অনুষ্ঠানস্থলে এসে আমাদের অনুষ্ঠান করতে নিষেধ করেন।

এ সময় তিনি বলেন, আবরার বুয়েটের ছাত্র। তাই আমরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে তার জন্য কোনো স্মরণসভা করতে পারব না। এ সময় আল আমিন রহমান আমাদের সবার পরিচয়পত্র দেখতে চান। পরে আমরা তাকে দিতে অস্বীকার করলে তারা চলে যায়। এবং আমরা আমাদের প্রোগ্রাম শুরু করি .

আসিফ মাহমুদ বলেন, ‘পরে বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে ছাত্র অধিকার পরিষদের সভাপতি বিন ইয়ামিন মোল্লা বক্তব্য দেওয়ার সময় আল আমিন রহমান ও সুজন শেখের নেতৃত্বে ঢাকা মহানগর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আমাদের ওপর হামলা চালায়। কর্মসূচি উপলক্ষে আনা কয়েকটি চেয়ারও ভাঙচুর করে তারা।

ফাহাদ স্মৃতি সংসদের আহ্বায়ক ও আবরার ছাত্র অধিকার পরিষদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি আখতার হোসেন বলেন, আমাদের পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি অনুযায়ী স্মরণসভা শুরু করার পর প্রক্টরিয়াল টিমের উপস্থিতিতে বিএলএ নেতাকর্মীরা আমাদের ওপর হামলা চালায়। হামলায় আমাদের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে, দুজনের অবস্থা গুরুতর। একজন রিকশাচালকের মাথাও ফেটে গেছে।

আহতদের ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে আসা হয়েছে। আমরা কোনো দলীয় ব্যানারে এই কর্মসূচি করিনি, আবরার ফাহাদ স্মৃতি সংসদের ব্যানারে এই কর্মসূচি করেছি। আমরা এই ঘৃণ্য হামলার নিন্দা জানাই।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি এম এম মহিন উদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব খান, সংগঠক নাজিম উদ্দিন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সম্পাদক আল আমিন রহমান, সহ-সম্পাদক শিমুল খান, আবদুর রহিম, জুহুরুল হক, ছাত্রলীগের সভাপতি কামাল উদ্দিন রানা, সাধারণ সম্পাদক রুবেল হোসেন প্রমুখ। এতে কেন্দ্রীয়, বিশ্ববিদ্যালয়সহ ছাত্রলীগের হল শাখার নেতাকর্মীরা অংশ নেন।

হামলার পর কর্মসূচির জন্য আনা ব্যানার পুড়িয়ে দেওয়া হয়। এ ঘটনায় ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক নাজিম উদ্দিনও পাটের আঘাতে আহত হয়েছেন।

ছাত্রলীগের কর্মসূচিতে হামলার ঘটনায় জড়িত ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব খান বলেন, ‘তারা (ছাত্র অধিকার) ক্যাম্পাসে বহিরাগত ও মৌলবাদীদের নিয়ে কর্মসূচি পালন করে। আমরা তাদের কাছে জানতে চাই যে তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র কিনা। এ সময় তারা কিছু না দেখিয়ে আমাদের ওপর হামলা চালায়। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা তাদের প্রতিহত করে।’

ঘটনার সময় পুলিশ উপস্থিত থাকলেও তারা কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

উল্লেখ্য, কিছু বছর আগে ছাত্রলীগ এর হামলায় না ফেরার দেশে চলে গিয়েছিলেন বুয়েটের ছাত্র আবরার ফাহাদ। মূলত সরকারের সমালোচনা করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেওয়ার কারনে তাকে না ফেরার দেশে পাঠানো হয়েছিল এবং এই ঘটনায় সারাদেশে তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ ছড়িয়েছিল

 

Looks like you have blocked notifications!
Ads
[json_importer]
RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Most Popular

Recent Comments