Sunday, February 5, 2023
বাড়িConutrywideএবার বিএনপির দাপুটে নেতার মেয়েকে নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক

এবার বিএনপির দাপুটে নেতার মেয়েকে নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক

Ads

এবার বিএনপি নেতার মেয়েরকে নিয়ে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় উপজেলা জুড়ে শুরু হয়েছে আলোচনা। এই নিয়ে দেখা গেছে অনেকের মনে নানা মিশ্রপ্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।জানাগেছে বিএনপির সাবেক সভাপতির মেয়েকে আহ্বায়ক করে উপজেলা যুব মহিলা লীগের কমিটি গঠন করা হয়েছে। এছাড়া পৌরসভার বাইরে থেকে একজন সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্যকে পৌর শাখার সদস্য সচিব করা হয়েছে। বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে জেলা জুড়ে।

মঙ্গলবার কোটালীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে যুব মহিলা লীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলে যুব মহিলা লীগের উপজেলা ও পৌর শাখার আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়।

কাউন্সিলে প্রধান অতিথি ছিলেন কোটালীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ভবেন্দ্রনাথ বিশ্বাস এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আয়নাল হোসেন শেখ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মতিয়ার রহমান হাজরা ও জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি পারস্য সুলতানা। অতিথি

সভাপতিত্ব করেন যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় সিনিয়র সহ-সভাপতি গাজী আফরোজা বিনতে মনসুর লিপি।

সম্মেলনে কোটালীপাড়া উপজেলা শাখার সাবেক সভাপতি সাইদুর রহমান তালুকদারের মেয়ে রওশন আরা খানম মিলিকে আহবায়ক ও রুবি বিশ্বাসকে সদস্য সচিব এবং কোটালীপাড়া উপজেলা শাখার সদস্য সচিব শাবানা জেকে এবং হিরণ ইউনিয়নের সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্য তপু বিশ্বাস কল্পনাকে আহ্বায়ক করা হয়। কোটালীপাড়ার কোটালীপাড়া পৌর শাখা যুব মহিলা লীগের সদস্য সচিব হিসেবে গঠন করা হয়। হয়

একই দিন নবগঠিত কমিটিতে স্বাক্ষর করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ভবেন্দ্র নাথ বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক আয়নাল হোসেন শেখ ও সাংগঠনিক সম্পাদক মতিয়ার রহমান হাজরা।

এদিকে বিএনপির সাবেক সভাপতির মেয়ে কোটালীপাড়া উপজেলা শাখার আহ্বায়ক ও পৌরসভার বাইরে হিরণ ইউনিয়নের সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্যকে পৌর যুবলীগের সদস্য সচিব পদে নিয়োগ দেয়ায় মুজিব আদর্শের সৈনিকদের মধ্যে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। কোটালীপাড়ায়। নেতাকর্মীদের প্রশ্ন, কোটালীপাড়ায় কি এমন কেউ ছিল না যে, বিএনপির লোকজনকে দলের দায়িত্বশীল পদে নিয়ে আসতে হবে।

এ ছাড়া ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে কেন আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হলো? এ নিয়ে মুখ খুলতে শুরু করেছেন অনেকেই। এ নিয়ে গোটা জেলায় চলছে বিতর্ক।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কোটালীপাড়া উপজেলা যুব মহিলা লীগের নবগঠিত কমিটির আহ্বায়ক রওশন আরা মিলি স্বীকার করেন, তার বাবা কোটালীপাড়া উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ছিলেন।

কোটালীপাড়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি এস এম মহিউদ্দিন বলেন, মিলির বাবা মৃত্যুর আগ পর্যন্ত জিয়াউর রহমানের আদর্শের সৈনিক হিসেবে রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন। তিনি ২০০৭ সাল পর্যন্ত বিএনপির কোটালীপাড়া উপজেলা শাখার সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।

এদিকে বিএনপির সাবেক সভাপতির মেয়েকে নিয়ে সেই আলোচনার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ভবেন্দ্রনাথ বিশ্বাস বলেন, বিএনপির সাবেক সভাপতির মেয়ে মিলিকে যুব মহিলা লীগের আহ্বায়ক এবং পৌরসভার বাইরের সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্যকে সদস্য করা হয়েছে। পৌর শাখার সচিব। এ নিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে।

Looks like you have blocked notifications!
Ads
[json_importer]
RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Most Popular

Recent Comments