Monday, January 30, 2023
বাড়িEntertainmentআসলেই কী ‘আকবরের সঙ্গে প্রেম ছিল, এবার সব পরিষ্কার করেই দিলেন পূর্ণিমা

আসলেই কী ‘আকবরের সঙ্গে প্রেম ছিল, এবার সব পরিষ্কার করেই দিলেন পূর্ণিমা

Ads

সম্প্রতি না ফেরার দেশে চলে গিয়েছে একসময়ের আলোচিত গায়ক আকবর। তার গানের জাদুতে তিনি মানুষের মনে জায়গা করে নিয়েছিলেন ২০০৩ সালে, জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ইত্যদি -এর মাধ্যমে গায়ক আকবর সারা দেশে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। তিনি কিশোর কুমারের গান ‘একদিন পাখি উড়ে যায় জে আকাশে’ দিয়ে আলোড়ন সৃষ্টি করেছিলেন, কিন্তু তিনি তার প্রথম মৌলিক গান ‘তোমা হাত পাখির বাতাসে’ দিয়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌঁছেছিলেন। আকবর তার ভাগ্য পরিবর্তন করে একজন রিকশাচালক থেকে একজন পূর্ণাঙ্গ গায়কে পরিণত হন।

রোববার (১৩ নভেম্বর) দুপুরে আকবরের জীবন থেমে যায়। তার শতাধিক গান রয়ে গেছে। তবে এটি প্রথম মৌলিক গান যা সর্বত্র ফিরে আসে। গানটির ভিডিওতে আকবরের নায়িকা হিসেবে হাজির হয়ে চমকে দিয়েছেন জনপ্রিয় এই নায়িকা। আকবরের কণ্ঠের সঙ্গে পূর্ণিমার অভিনয় গানটিকে পূর্ণতা দিয়েছে।

তবে বেশ কয়েক বছর ধরেই শোবিজে চলছে তুমুল গুঞ্জন, ‘তোমার হাত পাখির কথা’ গানের ভিডিও করতে গিয়ে নায়িকা পূর্ণিমাকে প্রেমের প্রস্তাব দেন আকবর, বিয়ে করতে চেয়েছিলেন। গণমাধ্যমের বাইরেও এই গুজব ছড়িয়ে পড়ে দেশের সাধারণ মানুষের মধ্যে। এ নিয়ে আকবরকে অনেক কড়া কথা শুনতে হয়েছে। পূর্ণিমা-আকবর ভক্তদের কাছেও এটা একটা বড় কৌতূহল।

আকবরের প্রয়াণের দিন অভিনেত্রী পূর্ণিমার সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন, তিনি বলেন, গুজবটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। আসলে আকবর তাকে অনেক সম্মান করতেন।

পূর্ণিমা বলেন, “এগুলো খুব ফালতু এবং খুব নোংরা ধরনের জিনিস। এগুলো বানোয়াট ও সম্পূর্ণ মিথ্যা। তিনি (আকবর) তার জায়গা থেকে মানুষের সাথে সম্মানের সাথে কথা বলতেন। আমার কারণে তার সংসার ভেঙ্গেছে, সে প্রেম বা বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছে, এগুলো কিছুই না।

তার ফোনে আকবরের নম্বর নেই বলে মন্তব্য করেছেন অভিনেত্রী, “আমার ফোনে কখনোই তার (আকবরের) নম্বর ছিল না। তার ফোনেও আমার নম্বর থাকা উচিত নয়। কিন্তু তিনি আমাকে কখনো ফোন করেননি। তিনি আমার সঙ্গে কথা বলেননি। সেই ঘটনার পর ফোনে।

বর্তমান ফেসবুক যুগের কথা উল্লেখ করে এই তারকা আরও বলেন, ‘এটা ভালো যে তখন এখনকার মতো ফেসবুক ছিল না। থাকলে এসব মিথ্যা গুজব ভাইরাল হয়ে যেত। তারপরও কেউ কেউ বলেন আমিই তার বিয়ে ভাঙার কারণ। এগুলো মোটেও সত্য নয়। নিজের জায়গা থেকে তিনি আমাকে যথেষ্ট সম্মান ও শ্রদ্ধা করতেন।

পূর্ণিমা আরও বলেন, ২০০৩ সালে মিউজিক ভিডিও করার সময় আকবর খুবই নার্ভাস ছিলেন। তার কথায়, কাজটি করতে গিয়ে আকবর খুবই নার্ভাস ছিলেন। এটি তার জীবনের একটি বিশাল কাজ ছিল। আমি তাকে পাখা দিচ্ছি, তাকে খাওয়াচ্ছি। হাতে ধরার কিছু দৃশ্যও ছিল। এত ঘাবড়ে গিয়েছিলেন, পাশে বসবেন কি না! আরও অনেক সন্দেহ ছিল। ওই কাজের পর আকবরের সঙ্গে আর কোনো কাজ হয়নি। তবে বিভিন্ন শোতে একাধিকবার দেখা গেছে। দেখা হলে আমাকে সালাম দিতেন। সম্মানিত এইটুকুই।’

উল্লেখ্য, রিকশাচালক থেকে জনপ্রিয় গায়ক হওয়ার সৌভাগ্য হয়েছিল ইত্যাদি খ্যাত গায়ক আকবরের। নিজের মৌলিক গান দিয়ে তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়তায় উঠে আসেন এবং সেই সাথে মানুষের মনে জায়গা করে নিতে শুরু করেছিলেন তবে বেশিদিন তার এই জগতে থাকা হয়নি।

Looks like you have blocked notifications!
Ads
[json_importer]
RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Most Popular

Recent Comments